রবিবার, ১৯ মার্চ ২০২৩, ০৫:১৪ পূর্বাহ্ন

স্টোকসের অলরাউন্ড নৈপুণ্যে ইংল্যান্ডের শুভ সূচনা

তরফ স্পোর্টস ডেস্ক : বেন স্টোকসের অলরাউন্ড নৈপুণ্যে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ১০৪ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে ঘরের মাঠে ২০১৯ বিশ্বকাপের শুভ সূচনা করলো ইংল্যান্ড। এদিন ইংলিশদের সামনে সেভাবে লড়াই করতে পারেনি প্রোটিয়ারা। আর স্টোকসের পাশাপাশি ইংল্যান্ডের আলোচিত পেসার জোফরা আর্চারের দারুণ বোলিংয়ে যেন আত্মসমর্পণই করে ডু প্লেসিসবাহিনী।

লন্ডনের দ্য ওভালে বৃহস্পতিবার (৩০ মে) ২০১৯ বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হয় স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও আফ্রিকান জায়ান্ট দক্ষিণ আফ্রিকা। টসে জিতে ফিল্ডিংয়ে সিদ্ধান্ত নেন প্রোটিয়া অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস। এদিন চার হাফসেঞ্চুরিতে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ৩১১ রানে থামে ইংল্যান্ড। তবে ৩৯.৫ ওভারে মাত্র ২০৭ রানে গুটিয়ে যায় দ.আফ্রিকা।

আর্চারের হাত ধরেই দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে শুরুতে জোড়া সাফল্য পায় ইংল্যান্ড। দলীয় ৩৬ রান ও অষ্টম ওভারের চতুর্থ বলে তার বল খেলতে গিয়ে জো রুটের কাছে ক্যাচ দেন এইডেন মার্করাম (১১)। পরে তার বলেই মঈন আলীকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন দক্ষিণ আফ্রিকান অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস (৫)।

আর্চারের করা দলীয় চতুর্থ ওভারের পঞ্চম বলে আঘাত পেয়ে রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে মাঠ ছাড়েন প্রোটিয়া ওপেনার হাশিম আমলা।

জোফরা আর্চারের তৃতীয় শিকার হয়ে মাঠ ছাড়লেন রাসি ভন ডার ডুসেন। ৬১ বলে ৫০ করার পর মঈন আলীকে ক্যাচ দেন তিনি।  ৭৪ বলে ৬৮ করা ওপেনার কুইন্টন ডি কককে জো রুটের ক্যাচে ফেরান লিয়াম প্লাঙ্কেট। আর মঈন আলীর বলে ব্যক্তিগত ৮ রান করে ফেরেন জেপি ডুমিনি। পরে রান আউট হন ডোয়াইন প্রিটোরিয়াস।

পরে আমলা ফিরলেও সঙ্গীর অভাবে নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি। ২৩ বলে ১৩ করে প্লাঙ্কেটের শিকার হন। আর আন্দিলে ফেহলুকাইয়োর উড়িয়ে মারা শটে উড়ন্ত এক ক্যাচ ধরেন স্টোকস। ২৫ বলে ২৪ করে ফেহলুকাইয়ো আদিল রশিদের বলে আউট হন।

ইংল্যান্ড বোলারদের মধ্যে আর্চার সর্বোচ্চ ৩ উইকেট শিকার করেন। প্লাঙ্কেট ও স্টোকস দুটি করে উইকেট পান। এছাড়া রশিদ ও মঈন একটি করে উইকেট ভাগ করে নেন।

এর আগে এ ম্যাচ খেলতে নেমে ইতিহাসের পাতায় নিজের নাম লেখেন ইংলিশ অধিনায়ক ইয়ন মরগ্যান। ইংল্যান্ডের হয়ে সবচেয়ে বেশি ওয়ানডে ম্যাচ খেলার রেকর্ড এখন তার দখলে। এর আগে ১৯৭ ম্যাচ নিয়ে রেকর্ড ছিল সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক পল কলিংউডের দখলে। ইংল্যান্ডের জার্সিতে প্রথম ২০০ ম্যাচ খেলার কীর্তির মালিকও এখন মরগ্যান। বাকি ২৩ ম্যাচ তিনি আইরিশদের জার্সিতে খেলেছেন।

ইতিহাস গড়েন দ.আফ্রিকান স্পিনার ইমরান তাহিরও। ম্যাচের প্রথম ওভারেই এই লেগ স্পিনারের হাতে বল তুলে দেন প্রোটিয়া অধিনায়ক । কোনো বিশ্বকাপের প্রথম ওভারেই বল করতে আসা প্রথম স্পিনার এখন তিনি। আর ওই ওভারের দ্বিতীয় বলেই ইংলিশ ওপেনার জনি বেয়ারস্টোকে আউট করে ১২তম বিশ্বকাপের প্রথম উইকেট শিকারি হওয়ার গর্ব সঙ্গী হয়েছে তার।

সর্বোচ্চ ৭৯ বলে ৯টি চারে লুঙ্গি এনগিডির বলে আউট হওয়ার আগে ৮৯ রান করেন বেন স্টোকস। অধিনায়ক মরগ্যান ৬০ বলে ৫৭ করে ইমরান তাহিরের বলে আউট হন।

এই ফিফটি করার পথে ৭০০০ ওয়ানডে রানের মাইলফলক ছুঁয়েছেন মরগ্যান। তবে এর মধ্যে ৭৪৪ রান অবশ্য তার আগের দল আয়ারল্যান্ডের হয়ে। আর ইংলিশদের হয়ে তার রান প্রায় ৬ হাজার ৩৫০।

এছাড়া ওপেনার জেসন রয় ৫৩ বলে ৫৪ ও জো রুট ৫৯ বলে ৪১ রান করেন। তবে শেষ দিকের ব্যাটসম্যানরা ভালো করতে না পারায় স্কোর আর বড় করতে পারেনি স্বাগতিক ইংল্যান্ড।

বল হাতে ১০ ওভারে ৬৬ রান খরচে ৩ উইকেট তুলে নিয়েছেন প্রোটিয়া পেসার লুঙ্গি এনগিডি। ২টি করে উইকেট ঝুলিতে পুরেছেন ইমরান তাহির ও রাবাদা। বাকি ১ উইকেট গেছে আন্দিলে ফেহলুকাইয়োর দখলে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com