রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৫২ অপরাহ্ন

বাহুবলে দুই স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে দুই কিশোর গ্রেফতার

বাহুবল (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি: হবিগঞ্জের বাহুবলে দুই স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে দুই কিশোরকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) রাতে উপজেলার মিরপুর ইউনিয়নের বারআউলিয়া গ্রাম থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হল বারআউলিয়া গ্রামের নুরুল হকের ছেলে খোকন মিয়া (১৬) ও একই গ্রামের আব্দুল আউয়ালের ছেলে সুমন মিয়া (১৭)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বাহুবল উপজেলার মিরপুর ইউনিয়নের বার আউলিয়া স্কুল পড়ুয়া দুই কিশোরী কন্যা বুধবার সন্ধ্যায় পাশের বাড়িতে একটি দোকানে চিনি আনতে গিয়ে নিখোঁজ হয়। রাত বাড়ার সাথে সাথে পরিবারের লোকজন তাদের সন্ধান না পেয়ে বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করতে থাকেন। এমতাবস্থায় স্থানীয় দুই শিশুর ভাষ্যমতে তারা জানতে পারেন পাশের বাড়ির দোকানে গেলে ওই দুই কিশোরীকে নুরুল হকের পুত্র সহপাঠি খোকন মিয়া ও তার সহযোগী আব্দুল আউয়ালের পুত্র সহপাঠি সুমন মিয়া ঘরের গ্রীলের ভিতর নিয়ে আটকে রেখেছে। তখন কিশোরীর অভিভাবক স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ মুরুব্বিয়ানদের নিয়ে খোকন ও সুমন মিয়াকে চাপ দেন।

কিন্তু তারা কিশোরীর সন্ধান না দিয়ে অভিযোগ অস্বীকার করে এবং একটি সিএনজি অটোরিকশাযোগে তাদের অন্যত্র সরিয়ে ফেলে। তবে সামাজিক চাপের মুখে ভোর ৫টার দিকে ছেলে দুইজনের অভিভাবকের দেয়া প্রতিশ্রুতি মতে কিশোরীদের ছেড়ে দিলে তারা বাড়ি ফিরে।

তারা রাতব্যাপী পাশবিক নির্যাতনের কথা অভিভাবকদের কাছে বর্ণনা করলে বৃহস্পতিবার সকালে জনপ্রতিনিধিসহ মুরুব্বিগণ বিষয়টি সালিশে মীমাংসার চেষ্টা করেন। কিন্তু ভিকটিমের পক্ষ এতে সন্তোষ্ট না হয়ে বাহুবল মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে। পরে বিকেলে  বাহুবল নবীগঞ্জ সার্কেল এএসপি আবুল খয়ের ও ওসি কামরুজ্জামান সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং অভিযুক্ত কিশোর খোকন ও সুমনকে আটক করেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বাহুবল মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ কামরুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান,  দুইজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে এবং দুই ভিকটিমকে ডাক্তারী পরিক্ষার জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতাল প্রেরণ করা হয়েছে।

 

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com