সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৪০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :

ফেনী-২ আসনে ভোটারদের প্রিয় নিজাম হাজারীই নৌকার মাঝি

নিজাম উদ্দিন হাজারীর ফাইল ছবি

সাহিদা সাম্য লীনা, ফেনী : ফেনী-২ (সদর) আসনটি জেলার রাজনীতিতে একটি মর্যাদা ও গুরুত্বপূর্ণ আসন হিসাবে ভোটারদের কাছে বিবেচিত। একাদশ জাতীয়  সংসদ নির্বাচনে ফেনী-২ আসনে কে পাচ্ছেন নৌকা ও ধানের শীষের প্রতীক? এ নিয়ে এতোদিন ফেনীর সর্বত্র চলেছে আলোচনা। অবশেষে সে আলোচনা আজ দল অঙ্গ সংগঠন ও সমর্থকদের আনন্দ র‌্যালিতে পরিপূর্ণতা পেল। ফেনী-২ আসনে নৌকার কান্ডারী হলেন নিজাম উদ্দিন হাজারী।
ফেনী ২ আসনে আওয়ামী লীগের মরহুম খাজা আহাম্মদ ছাড়াও জয়নাল হাজারী তিনবার, (১৯৮৬, ১৯৯১, ১৯৯৬ সাল), অধ্যাপক ভিপি জয়নাল তিনবার, (১৯৮৮, ২০০১, ২০০৮ সাল) ও সর্বশেষ বর্তমান সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারী একবার (২০১৪) এমপি নির্বাচিত হয়েছেন।
ফেনী পৌরসভা ও সদর উপজেলার ১২টি ইউনিয়ন নিয়ে ফেনী-২ সদর আসন গঠিত। একজন আওয়ামীলীগ সাপোর্টার  জানান, ২০১৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী হিসেবে নিজাম উদ্দিন হাজারীর আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়ন পাওয়ার সম্ভাবনা ছিল শতভাগ। আজ তা ফেনীবাসী দেখলো। তার মতে, সবচেয়ে বড় কারন, নিজাম হাজারীর নেতৃত্বেই ফেনী জেলা আওয়ামীলীগ ঐক্যবদ্ধ।
সূত্র মতে, জয়নাল হাজারী ১৯৯৬ সালে নির্বাচিত হয়ে স্টিয়ারিং বাহিনী গঠন করে দলকে চাঙা করলেও ব্যাপক সমালোচনার সম্মুক্ষিণ হন। জেলা আওয়ামীলীগের বিভিন্ন সভা সমাবেশে বক্তারা বলে থাকেন, এক সময় লেবানন খ্যাত সন্ত্রাসের জনপদ ফেনী এখন শান্তির জনপদে পরিনত হয়েছে। আর তা নিজাম হাজারীর নেতৃত্বেই হয়েছে। শান্তি, উন্নয়ন, সমৃদ্ধির শহর নতুন ফেনী নির্মাণে একমাত্র নিজাম হাজারীর মাধ্যমেই রুপ পায়।
২০০৮ সালের ৩১ ডিসেম্বরের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী। বিএনপি প্রার্থী ভিপি জয়নালের কাছে ইকবাল সোহবান হেরে গেলে ফেনীর আওয়ামী রাজনীতিতে নেমে আসে হতাশা।
এই কারণে ফেনীর রাজনীতিতে নিজাম উদ্দিন হাজারীর প্রয়োজন অনুভব করা হয়। এবং তিনিই এই আসনে সবচেয়ে জনপ্রিয় ব্যক্তিতে পরিণত হন। গত পাঁচ বছরে তিনি ফেনীতে বেশকিছু উন্নয়ন করেন। শিক্ষা, সাহিত্য-সংস্কৃতি, চিকিৎসা ও  বিভিন্ন জনবান্ধব কাজে উন্নয়ন, দেশের ৫০টি অর্থনৈতিক অঞ্চলের মধ্যে ফেনীর সোনাগাজীকে বড় অর্থনৈতিক অঞ্চল হিসেবে গড়তে উদ্যোগ, বিমানবন্দরের পরিকল্পনা, ফেনী শহরকে আধুনিকায়নে বিভিন্ন ব্যবস্থা ও শহর নিরাপত্তায় সিসিটিভির আওতায় আনেন। দেশের প্রথম ছয় লেন মহিপাল ফ্লাইওভার নির্মাণ ও ফতেহপুর ওভারপাস নির্মাণে তার প্রচেষ্টা ছিল অতুলনীয় এবং তারই আন্তরিকতায় এগুলো দ্রুত নির্মাণও সম্পন্ন হয়।
নিজাম উদ্দিন হাজারী ২০১১ সালে ফেনী পৌরসভা নির্বাচনে তৎকালীন মেয়র বিএনপি মনোনীত প্রার্থী নুরুল আবসারকে হারিয়ে মেয়র নির্বাচিত হন। পরবর্তীতে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির সংসদ নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্ধীতায় এমপি নির্বাচিত হন নিজাম উদ্দিন হাজারী।
নিজাম উদ্দিন হাজারী ১৯৬৬ সালে ১ জানুয়ারী শহরের মাষ্টার পাড়ার লমি হাজারী বাড়ীতে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ফেনী পৌরসভার সাবেক কমিশনার মরহুম জয়নাল আবেদীনের পুত্র। প্রাথমিক লেখাপড়া শুরু করেন সরকারী পাইলট প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে এবং পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক পাশ করেন। পরবর্তীতে চট্টগ্রাম কমার্স কলেজে পড়াশোনা করেন তিনি।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com