শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১০:২১ অপরাহ্ন

বিএনপির কর্মী সন্দেহে পুলিশ কনস্টেবলকে পেটালেন ওসি (ভিডিও)

নিজস্ব প্রতিবেদক : মৌলভীবাজারে বিএনপির কর্মী ‘সন্দেহে’ পুলিশের পিটুনি খেলেন জেলা পুলিশের বিশেষ শাখা (ডিএসবি)-এর কন্সটেবল আবুল বাশার।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার মৌলভীবাজার চৌমুহনীতে এই ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকালে মৌলভীবাজার চৌমূহনীতে খালেদা জিয়ার জামিন চেয়ে বিক্ষোভ মিছিলের কর্মসূচী গ্রহণ মৌলভীবাজার জেলা বিএনপি। সময়ের আগেই সকাল সাড়ে ১০টার দিকে দায়িত্ব পালন করতে চৌমূহনা এলাকায় আসেন ডিএসবি সদস্য আবুল বাশার। অন্যদিকে চৌমূহনাসহ গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে অবস্থান নেয় মৌলভীবাজার মডেল থানা পুলিশ।

সকাল ১১টার দিকে বিএনপি’র ১৫-২০ জন লোক মিছিলের জন্য রাস্তায় জড়ো হলে পুলিশ তাদের ধাওয়া দিয়ে ছত্রভঙ্গ করে দেয় তখন ডিএসবি সদস্য আবুল বাশার দায়িত্ব পালন করছিলেন চৌমূহনায়।

এসময় পুলিশের পোষাক পরিহিত অবস্থায় মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আলমঙ্গীর হোসেন ডিএসবি সদস্য আবুল বাশারকে পিছন দিক থেকে এসে থাপ্পর দেন। পরে ডিএসবি সদস্য নিজেকে বিএনপি কর্মী নন ডিএসবির সদস্য হিসেবে পরিচয় দিলে রক্ষা পান।

ডিএসবি সদস্য আবুল বাশার জানান, “সকালে আমি অফিসে আসার পর পুলিশ সুপার স্যারের নির্দেশে ডিআইও-১ আবু তাহের স্যারের সাথে চৌমূহনা পয়েন্টে যাই গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ ও ছবি তুলতে। ঘটনার সময় আমি যখন ছবি তুলতে যাই হঠাৎ করে পিছন দিক থেকে আমাকে ড্রেস পরিহিত অবস্থায় আক্রমণ করেন ওসি। তখন তাকে বলি যে আমি ডিএসবি সদস্য। এর পর তিনি আমার কাছে দুঃখ প্রকাশ করেন।

মৌলভীবাজার মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আলমঙ্গীর হোসেন জানান, ছত্রভঙ্গ করতে অজান্তে ঘটনাটি ঘটেছিল। বিষয়টি নিয়ে কথা বলা লজ্জার। যেহেতু গোয়েন্দা সংস্থার বাশারের আলাদা ড্রেস ছিল না তাই ছত্রভঙ্গ করার সময়ে বিএনপির কর্মী মনে হয়েছে। পরে পরিচয় পেয়ে আমরা বিষয়টা মিটিয়ে নিয়েছি। একটি ভুল-বুঝাবুঝি ঘটেছে। বিষয়টি যত প্রকাশ পাবে তত আমাদের জন্য লজ্জার।

বিএনপির কর্মীদের পেটানোর কারণ সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, তারা বিক্ষোভ করে বিশৃঙ্খলা করার চেষ্টা করছিলো। তাই তাদের ছত্রভঙ্গ করে দিয়েছি।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com