মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৭:২৭ পূর্বাহ্ন

আপিলেও বৈধতা পেলেন না হিরো আলম

তরফ নিউজ ডেস্ক: একাদশ সংসদ নির্বাচনে বগুড়া-৪ আসনে মনোনয়নপ্রত্যাশী আশরাফুল হোসেন আলম ওরফে হিরো আলমের মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) আপিল শুনানী শেষে এ সিদ্ধান্ত দেয় নির্বাচন কমিশন। তবে এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের আপিল করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, কোনো ষড়যন্ত্রে মাঠ ছাড়বো না। আগেই বলেছিলাম শেষদিন পর্যন্ত মাঠে থাকবো। আজ নির্বাচন কমিশন মনোনয়ন অবৈধ ঘোষণার পর তাৎক্ষণিক এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, হিরোকে জিরো বানানো এত সহজ নয়, এত সহজে মাঠ ছেড়ে যাচ্ছি না। উচ্চ আদালতে আপিল করবো।

হিরো আলম বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসন থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। স্বতন্ত্র হিসেবে কেউ প্রার্থী হতে চাইলে বা নির্বাচন করতে চাইলে মনোনয়নপত্রের সঙ্গে ১ শতাংশ ভোটারের স্বাক্ষর দাখিল করতে হয়। তবে তার মনোনয়নপত্রে নির্ধারিত ভোটারের স্বাক্ষর না থাকায় প্রাথমিক অবস্থায় তা বাতিল করা হয়। পরে তিনি প্রার্থিতা ফেরত পেতে আপিল করেন।

ওই সময় রিটার্নিং কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, ১০ জনের স্বাক্ষর গড়মিল থাকায় তার এ মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। এরপর মনোনয়ন ফিরে পেতে নির্বাচন কমিশনে (ইসি) আপিল করেন আলোচিত-সমলোচিত এই অভিনেতা। সে সময় হিরো আলম বলেছিলেন, মনোয়নপত্রের বৈধতা পেতে নির্বাচন কমিশনে (ইসি) আপিল করেছি। নির্বাচন কমিশনে ন্যায়বিচার না পেলে আদালতে যাবো।

এর আগে এরশাদের নেতৃত্বাধীন জাতীয় পাটির ‘লাঙ্গল’ মার্কার দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করে আলোচনা জন্ম দেন। পরে অবশ্য জাতীয় পার্টি থেকে তিনি মনোনয়ন পাননি। জাপার মনোনয়ন না পেয়ে বগুড়া-৪ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন তিনি।

বগুড়া-৪ আসন থেকে হিরো আলম ছাড়া আরও ১৫ জন মনোনয়ন দাখিল করেছিলেন। তাদের মধ্যে বাছাইয়ের দিনে হিরো আলমসহ সাতজনের মনোনয়ন বাতিল করা হয়।

উল্লেখ্য, ইউটিউবে বিচিত্র অভিনয়, গান আর নাচ দেখিয়ে দেশব্যাপী আলোচনায় আসেন হিরো আলম। তার প্রকৃত নাম আশরাফুল আলম।

সূত্র: বিডি২৪লাইভ

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com