মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৭:১০ পূর্বাহ্ন

বানিয়াচঙ্গের ইউপি চেয়ারম্যান মধুর বিরুদ্ধে প্রতিবেদন চুড়ান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক: মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে বানিয়াচং উপজেলার মুরাদপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মধু মিয়া তালুকদার (৬৬) সহ দুইজনের বিরুদ্ধে তদন্ত সম্পন্ন করেছে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থা।

মঙ্গলবার (১লা জানুয়ারী) রাজধানীর ধানমন্ডির তদন্ত সংস্থার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংস্থাটির প্রধান সমন্বয়ক এম এ হান্নান খান ও জ্যেষ্ঠ সমন্বয়ক সানাউল হক।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ২০১৮ সালের ২৬ এপ্রিল থেকে তদন্ত শুরু হয়। গণহত্যা, হত্যা, অপহরণ, আটক, নির্যাতন, লুটপাট, অগ্নিসংযোগ ও ধর্ষণসহ এধরনের ৫টি অপরাধের অভিযোগ আনা হয়েছে।

১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের পূর্বে আসামি মধু মিয়া এবং তার বংশের লোকজন মুসলিম লীগের সমর্থক ছিলেন। মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে তিনি বানিয়াচং থানার মুরাদপুর ইউনিয়নে পিস কমিটি ও মধু বাহিনী নামে একটি রাজাকার দল গঠন করে বলে সাক্ষীদের থেকে জানা যায়। তখন এই আসামি রাজাকার কমিটির কমান্ডার ছিলেন।

দেশ স্বাধীনের পর তিনি পলাতক থাকেন। ১৯৭৬ সালে গ্রামে ফিরে বিএনপিতে যোগ দেন এবং ২০১৬ সালে বিএনপি থেকে বানিয়াচং থানার মুরাদপুর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করে জয়ী হন।

বর্তমানে তিনি এই ইউনিয়নের বিএনপির সভাপতি হিসেবে আছেন। গত বছরের ২৩ মে তাকে গ্রেফতার করা হয় বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com