মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৯:০১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ঘূর্ণিঝড় রেমাল: ১৯ উপজেলার নির্বাচন স্থগিত বাহুবল উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অবাদ, সুন্দর ও দাঙ্গামুক্তভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে বাসার ছাদে আম পাড়তে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শিশুর মৃত্যু রেমাল পরিণত প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে, মহাবিপদ সংকেত বাহুবলে ৫ আওয়ামীলীগ নেতাকে হারিয়ে আলেম চেয়ারম্যান নির্বাচিত শান্তিপূর্ণ ও বিশ্বাস যোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠিত করতে পুলিশ বদ্ধপরিকর- এসপি আক্তার হোসেন জনগণ যাকে ভালবাসবে, দায়িত্ব দিতে চাইবে, তাকেই দেবে- জেলা প্রশাসক বাহুবলে বিয়ের আনন্দ-ফুর্তি চলাকালে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবতীর মুত্যু বাহুবল উপজেলা নির্বাচন : ২০ প্রার্থীর মাঝে নির্বাচনী প্রতীক বরাদ্দ বাহুবল উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

গুলিস্তানে পুলিশের ওপর বোমা বিস্ফোরণের দায় স্বীকার আইএসের

তরফ নিউজ ডেস্ক : সোমবার রাতে গুলিস্তানে পুলিশের ওপর বোমা বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করেছে জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস। বার্তা সংস্থা এএফপি এ খবর দিয়েছে। এতে বলা হয়েছে, জিহাদি কর্মকান্ডের ওপর নজরদারি করা যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রতিষ্ঠান সাইট ইন্টেলিজেন্স আইএসের স্বীকারোক্তির এ তথ্য জানিয়েছে। সাইট ইন্টেলিজেন্সও এ নিয়ে বিবৃতি দিয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, দুই বছরের বেশি সময় পর প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে হামলার কৃতিত্ব দাবি করেছে আইএস। ঢাকায় পুলিশের ওপর বোমা হামলার দায় স্বীকার করেছে তারা। এএফপি লিখেছে, রাজধানীর গুলিস্তানে একটি মার্কেট এলাকায় পুলিশের ওপর ওই বিস্ফোরণ হয়। এতে তিনজন পুলিশ সদস্য আহত হন।

উল্লেখ্য, সোমবার রাত ৮টার দিকে রাজধানীর গুলিস্তান এলাকায় ককটেল (বোমা) হামলায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হন। বঙ্গবন্ধু শপিং কমপ্লেক্সের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ওই এলাকায় দুই মিনিটের জন্য বিদ্যুৎ সংযোগও বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এছাড়া ঘটনার সময় ওই এলাকার আহাদ পুলিশবক্স লক্ষ্য করেও বোমা হামলা চালানো হয়। এতে আহতরা হলেন, ট্রাফিক কনস্টেবল নজরুল ইসলাম (৩৭),  মো. লিটন এবং কমিউনিটি পুলিশ মো. আশিক (২৬)। তাদেরকে প্রথমে রাজারবাগ পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঢাকা মহানগর পুলিশের মতিঝিল বিভাগের উপ-কমিশনার (এডিসি) শিবলী নোমান বলেছেন, হঠাৎ করে এ ধরনের হামলা কেন তার গভীরে খোঁজ নেয়া হচ্ছে। হামলাকারী কে বা কারা তা এখনো জানা যায়নি। ঘটনার তদন্ত চলছে।
ওদিকে এ ঘটনায় আলাদাভাবে টুইট করেছেন সাইট ইন্টেলিজেন্সের পরিচালক রিটা কাটজ। তার টুইট এ রকম- ব্রেকিং: ২০১৭ সালের মার্চের পর বাংলাদেশে প্রথম হামলার দাবি করেছে আইসিস। তারা রাজধানী ঢাকায় পুলিশের ওপর আইইডি বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। মিডিয়ার খবর অনুযায়ী এতে আহত হয়েছেন তিন জন। শ্রীলঙ্কায় ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার মাত্র কয়েকদিন পরেই এ খবর পাওয়া গেলো। এতে দক্ষিণ এশিয়ায় আইএসের হুমকি বৃদ্ধির ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে।

এএফপিকে উদ্ধৃত করে এ রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে অন্য বিদেশী গণমাধ্যমেও। এর মধ্যে রয়েছে অনলাইন জাপান টাইমস,  সিঙ্গাপুরের দ্য স্ট্রেইটস টাইমস, দ্য এশিয়ান করেসপন্ডেন্ট। এএফপি তার রিপোর্টে বসিলায় র‌্যাবের সফল অভিযান নিয়ে রিপোর্টে বলেছে, ঢাকায় আত্মগোপন করে থাকা ইসলামপন্থি উগ্রবাদীদের সন্দেহজনক এক আস্তানায় সোমবার অভিযান চালিয়েছে বাংলাদেশী নিরাপত্তা রক্ষাকারী বাহিনী। পুলিশ বলেছে, এতে কমপক্ষে দু’জন নিহত হয়েছে। অন্যদিকে সোমবার রাতে বোমা হামলা করে তিন পুলিশকে আহত করার দায় স্বীকার করেছে জঙ্গি গোষ্ঠী আইএস।

রোববার দিবাগত মধ্যরাতে রাজধানীর বসিলায় একটি বাড়ি ঘিরে ফেলে র‌্যাবের কমান্ডোরা। এ সময় তাদের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধ হয় বলে এএফপিকে জানিয়েছেন র‌্যাব-৩ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আশিক বিল্লাহ। তিনি আরো বলেছেন, একটি বিস্ফোরণে ওই বাড়ির দেয়াল ধসে পড়লে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। তিনি আরো বলেন, ওই বাড়ির ভিতরে দু’জন জঙ্গির দেহ খুঁজে পায় আমাদের বোমা নিষ্ক্রিয়করণ ইউনিট। বিস্ফোরণ এতটাই শক্তিশালী ছিল যে, এতে নিহতদের দেহ ছিন্নভিন্ন হয়ে যায়। কেঁপে ওঠে গোটা এলাকা। ওই ঘটনায় একজন কেয়ারটেকার, একটি মসজিদের ইমাম সহ আটক করা হয়েছে চারজনকে।

২০১৬ সালের জুলাইয়ে ঢাকায় হলি আর্টিজানে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলা হয়। তাতে ১৮ বিদেশী সহ কমপক্ষে ২২ জনকে হত্যা করা হয়। আইএসের আদর্শে অনুপ্রাণিত জঙ্গিরা ওই হামলা চালায়। এরপর থেকেই ইসলামপন্থি উগ্রবাদীদের বিরুদ্ধে দমনপীড়ন শুরু করে বাংলাদেশ।
২০১৭ সালের মার্চে সিলেটে বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করে আইএস। তখন পুলিশ বলেছিল, ওই বিস্ফোরণে ৬ জন নিহত হয়েছেন। কমান্ডোরা ইসলামপন্থি উগ্রবাদীদের আস্তানায় অভিযান চালাতে গেলে এ ঘটনা ঘটে। ওই সময় আইএসের দায় স্বীকারের বিষয়টি প্রত্যাখ্যান করে সরকার এবং হামলার জন্য দেশের ভিতর গড়ে উঠা একটি নিষিদ্ধ সংগঠনকে দায়ী করে।

২০১৬ সালের হামলার পর নিরাপত্তা রক্ষাকারী বাহিনী সারাদেশে ঘেরাও অভিযান চালায়। এতে দুটি ইসলামপন্থি উগ্র গ্রুপের প্রায় ১০০ সদস্যকে হত্যা করা হয়েছে। আটক করা হয়েছে কয়েকশত সন্দেহভাজনকে।
গত ২১ এপ্রিল ইস্টার সানডে’তে শ্রীলঙ্কায় ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার পর দক্ষিণ এশিয়ার এ দেশটিতে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com