সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৫২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :

লোকসভায় দেবের সঙ্গী এবার নুসরাত-মিমিও

তরফ আন্তর্জাতিক ডেস্ক : রুপালি জগত থেকে লোকসভায় পা আগেই রেখেছিলেন দেব, এবার তার সঙ্গী হতে যাচ্ছেন টালিউডের আরও দুই তারকা নুসরাত জাহান ও মিমি চক্রবর্তীও।

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে বৃহস্পতিবার ফল গণনা যতদূর গড়িয়েছে, তাতে এই তিন বাঙালি তারকার জয় অনেকটাই নিশ্চিত।

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল তৃণমূল কংগ্রেস থেকে প্রার্থী হয়েছিলেন তারা; প্রতীক ছিল জোড়া ফুল।

হালের নায়িকা নুসরাত ভোটে নামতে না চাইলেও ‘মমতাদির’ অনুরোধ এড়াতে পারেননি, প্রার্থী হন বাংলাদেশের সাতক্ষীরা সীমান্ত লাগোয়া বসিরহাট আসন থেকে।

মুসলিম অধ্যুষিত এই আসনে মমতা এবার আগের জেতা প্রার্থী বদলে এনেছিলেন নুসরাতকে, নেত্রীকে হতাশ করেননি তিনি।

সেখানে বিজেপির সায়ান্ত বসুকে প্রায় আড়াই লাখ ভোট পেছনে ফেলে জয়ের পথে রয়েছেন নুসরাত জাহান। আরেক প্রতিদ্বন্দী সিপিআইয়ের পল্লব সেনগুপ্ত রয়েছেন আরও পেছনে।

নুসরাতের মতোই এই প্রথম ভোটের লড়াইয়ে নামা মিমি চক্রবর্তীকে প্রার্থী করা হয় রাজ্যের মর্যাদাপূর্ণ আসন হিসেবে বিবেচিত যাদবপুর থেকে।

এখানেও প্রার্থী বদলে জোড়াফুলের কাণ্ডারি হন ‘বোঝে না সে বোঝে না’ তারকা। তিনিও দ্বিগুণ ভোটে এগিয়ে আছেন বিজেপির অনুপম হাজরা থেকে। এই অনুপম এক সময় তৃণমূলে ছিলে, কিছুদিন আগেই বহিষ্কৃত হওয়ার পর বিজেপিতে যোগ দেন।

চলচ্চিত্র জগতে দেব নামে জনপ্রিয় দীপক অধিকারী এবার দ্বিতীয়বারের মতো পার্লামেন্ট সদস্য হতে চলেছেন ঘাটাল আসনে।

গত লোকসভায় আড়াই লাখেরও বেশি ভোটের ব্যবধানে জিতেছিলেন দেব। এবার বিজেপির ভারতী ঘোষ থেকে এগিয়ে আছেন লাখ খানেক ভোটের ব্যবধানে।

ভোটে নিজে জয়ের পথে থাকলেও দলের অপ্রত্যাশিত ফল দেখে দেব ফেইসবুকে লিখেছেন, “মানুষ ভোট দিয়েছে, একজন জয়ী হয়েছে। কেউ হারেনি। দেশের গণতন্ত্র জিতেছে।”

জোড়াফুল প্রতীকে জিততে চলেছেন আরেক অভিনেত্রী শতাব্দী রায়ও। বীরভূম কেন্দ্রে বিজেপির দুধ কুমার মণ্ডলকে পেছনে ফেলে ‘হ্যাটট্রিক’ জয়ের পথে তিনি। এর আগে ২০০৯ সালে ও ২০১৪ সালেও এই আসনে জিতেছিলেন এক সময়ের জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী।

জোড়া ফুল প্রতীকে শতাব্দী, দেব, মিমি ও নুসরাতের মতো সুবিধা করতে পারেননি আরেক তারকা মুনমুন সেন। আসানসোলে প্রার্থী হয়েছিলেন কিংবদন্তি সুচিত্রা সেনের মেয়ে, কিন্তু ওই আসনে তাকে মুখোমুখি হতে হয়েছে আরেক তারকা বাবুল সুপ্রিয়ের।

মুনমুনকে এক লাখের বেশি ভোটে হারিয়ে টানা দ্বিতীয়বার লোকসভায় যাচ্ছেন গায়ক বাবুল সুপ্রিয়।

বাবুলের মতোই পদ্মফুলের প্রার্থী হয়ে হুগলিতে জিততে চলেছেন অভিনেত্রী ও নৃত্যশিল্পী লকেট চট্টোপাধ্যায়।

বলিউডের যারা

পারিবারিক আসন আমেথিতে কংগ্রেস প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধী এবার যার কাছে হারতে চলেছেন, সেই স্মৃতি ইরানিও একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী।

হিন্দি সিরিয়াল  ‘কিউ কি সাঁস ভি কাভি বহু থি’র তুলসি খ্যাত স্মৃতি বিজেপিতে যোগ দিয়ে ভোট করে মন্ত্রী হয়ে এবার রাহুলকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেন। সন্ধ্যা পর্যন্ত যতগুলো কেন্দ্রের ভোট গণনা হয়েছে, তাতে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চললেও এগিয়ে আছেন স্মৃতি।

বিজেপি ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দিয়ে বিহারের পাটনা সাহিব আসনে প্রার্থী হয়েছিলেন বলিউড তারকা শত্রুঘ্ন সিনহা। কিন্তু তাকে হারতে হচ্ছে পুরনো দলের প্রার্থীর কাছে।

উত্তরপ্রদেশের লক্ষ্ণৌ থেকে সমাজবাদী পার্টির টিকেট কেটে সুবিধা করতে পারেননি শত্রুঘ্নর স্ত্রী পুনম সিনহাও।

উত্তর প্রদেশে বিজেপির জয়জয়কারের মধ্যে রামপুর হারতে চলেছেন পদ্মফুলের প্রার্থী বলিউডের আরেক তারকা জয়াপ্রদা। বিজেপির প্রার্থী হয়ে তাকে হারতে হচ্ছে তারই পুরনো দল সমাজবাদী পার্টির প্রার্থীর কাছে।

উত্তর প্রদেশের ফতেহপুর সিকরি থেকে নির্বাচন করে কংগ্রেসের ভরাডুবির অংশ হচ্ছেন রাজ বাব্বর।

মহারাষ্ট্রের মুম্বাই উত্তরে কংগ্রেসের টিকেট নিয়েছিলেন ‘রঙ্গিলা’ তারকা উর্মিলা মাতন্ডকার। এই আসনে হারতে যাচ্ছেন তিনিও।

কংগ্রেসের পাঞ্জা প্রতীক নিয়ে ভোটে নামা অধিকাংশ তারকারা হারতে চললেও বিজেপির টিকেট যারা নিয়েছেন, তাদের মধ্যে জয়াপ্রদা বাদে অন্য সবার জয়ের আভাস মিলছে।

উত্তর প্রদেশের মথুরা থেকে জিততে যাচ্ছেন বিজেপি প্রার্থী হেমা মালিনি। তার স্বামী ধর্মেন্দ্রর আগের স্ত্রীর ছেলে বলিউড তারকা সানি দেওল পাঞ্জাবের গুরদাসপুর থেকে বিজেপির হয়ে জয়ের মুখ দেখতে যাচ্ছেন। বিজেপির হয়ে জিততে যাচ্ছেন অভিনেত্রী কিরণ খেরও।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com