সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:২৫ পূর্বাহ্ন

ওসির হস্তক্ষেপে চারদিন পর মায়ের কোলে শিশু মিমি

বকশীগঞ্জ (জামালপুর) প্রতিনিধি: জামালপুরের বকশীগঞ্জে ৭ মাসের শিশু সন্তানকে মায়ের কাছ থেকে নিয়ে যায় এক পাষন্ড বাবা। অবশেষে চারদিন পর বকশীগঞ্জ থানার ওসি শফিকুল ইসলাম স¤্রাটের দৃঢ় হস্তক্ষেপে শিশু মিমি তার মায়ের কোলে ফিরেছেন। এ নিয়ে বকশীগঞ্জ থানার ওসির একটি স্ট্যাটাস ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। এতে তার মানবিক কর্মকান্ডের কারণে প্রশংসায় ভাসছেন ওসি শফিকুল ইসলাম সম্রাট।

জানা গেছে, বকশীগঞ্জ পৌর এলাকার নয়াপাড়া গ্রামের তালেব আলীর ছেলে মিলনের সাথে দুই বছর আগে মালিরচর গ্রামের বালু মিয়ার মেয়ে মাসুমা বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন সময়ে যৌতুকের জন্য মারধর করা হতো মাসুমাকে। এরই মধ্যে মাসুমার কোল জুড়ে আসে ফুটফুটে এক কন্যা সন্তান।

গত ২০ দিন আগে যৌতুকের দাবিতে মারধর করে মাসুমাকে বাড়ি থেকে বের করে দেয় তার স্বামী মিলন মিয়া। স্বামীর নির্যাতনের শিকার হয়ে মাসুমা তার বাবার বাড়িতে চলে আসে। চার দিন আগে মিলন মিয়া মাসুমার কাছ থেকে জোর করে তার সাত মাসের শিশু কন্যা মিমিকে নিয়ে যায়।
এঘটনার পর মাসুমা বেগম তার সন্তানকে ফিরে পেতে বকশীগঞ্জ থানার দারস্থ হলে বকশীগঞ্জ থানার ওসি শফিকুল ইসলাম স¤্রাটের দৃঢ় হস্তক্ষেপে রোববার রাত ১০ টার দিকে শিশটি উদ্ধারে অভিযান চালায় থানা পুলিশ। এসআই আকিকুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশ সদস্যরা মিলনের বাড়ি থেকে শিশুটি উদ্ধার করেন।

পরে শিশুটির মা মাসুমা বেগমের হাতে কোলে তুলে দেন বকশীগঞ্জ থানার ওসি শফিকুল ইসলাম সম্রাট।

এঘটনার পর মায়ের কোলে মিমির ছবি সহ বকশীগঞ্জ থানার ওসি শফিকুল ইসলাম সম্রাট বকশীগঞ্জ থানার ফেসবুক আইডি থেকে “বন্যেরা বনেই সুন্দর শিশুরা মাতৃক্রোড়ে” শিরোনামে একটি স্ট্যাটাস দিলে সেটিও ভাইরাল হয়েছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com