বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০১:৩৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বাহুবলে ৫ আওয়ামীলীগ নেতাকে হারিয়ে আলেম চেয়ারম্যান নির্বাচিত শান্তিপূর্ণ ও বিশ্বাস যোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠিত করতে পুলিশ বদ্ধপরিকর- এসপি আক্তার হোসেন জনগণ যাকে ভালবাসবে, দায়িত্ব দিতে চাইবে, তাকেই দেবে- জেলা প্রশাসক বাহুবলে বিয়ের আনন্দ-ফুর্তি চলাকালে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবতীর মুত্যু বাহুবল উপজেলা নির্বাচন : ২০ প্রার্থীর মাঝে নির্বাচনী প্রতীক বরাদ্দ বাহুবল উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত বাহুবলে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২ বাহুবল হাসপাতালের নতুন ব্যবস্থাপনা কমিটি প্রথম সভা বাহুবলে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের বাছাইয়ে দুই প্রার্থীর মনোনয়নপত্র অবৈধ বাহুবল উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ২০ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল

শচীঅঙ্গন ধামের উৎসব কমিটির সাধারণ সম্পাদক হলেন সাংবাদিক অভিজিৎ

নিজস্ব প্রতিবেদক :

১৬ ফেব্রুয়ারি শুরু হচ্ছে ৫দিন ব্যাপী উৎসব
আবারও  শ্রীচৈতন্য মহাপ্রভুর মাতুলালয় শ্রীশ্রী শচীঅঙ্গন ধামের বার্ষিক উৎসব কমিটির সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পেয়েছেন সাংবাদিক অভিজিৎ ভট্টাচার্য্য। এরআগে টানা চারবার তিনি এই দায়িত্ব পালন করেছেন। হিন্দু সম্প্রদায়ের বড় এই মন্দিরের বার্ষিক উৎসবে এনিয়ে তিনি পাঁচবার সাধারণ সম্পাদক হলেন। উৎসবের সভাপতি হয়েছেন শেখর দেব।

গত ২৩ নভেম্বর মন্দিরে আয়োজিত এক সাধারণ সভায় তাকে নতুন করে এই দায়িত্ব দেয়া হয়। ওইদিন সভায় ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে উদযাপিত হওয়া বার্ষিক উৎসবের আয়-ব্যয়ের হিসাব দাখিল করেন। ২০১৮ সালের উৎসবে সবমিলিয়ে আয় হয়েছিল ৯ লাখ ৮৯ হাজার ৩২৭ টাকা। খরচ হয়েছিল ৯ লাখ ৭৬ হাজার ৪৭৪ টাকা। উদ্বৃত্ত ১২ হাজার ৮৫৩ টাকা।

নতুন করে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পেয়ে অভিজিৎ ভট্টাচার্য্য বলেন, ১০৮টি প্রদীপ প্রজ্জলনের মাধ্যমে ২০১৯ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় শুরু হয়ে ২০ ফেব্রুয়ারি রাতে আসন্ন ৩৮তম বার্ষিক উৎসব শেষ হবে। এবারের উৎসবে ভারতের শিলচর, বাকুঁড়া ও কলকাতার বিশিষ্ট শিল্পীদের সঙ্গীত পরিবেশনাসহ দেশের বিশিষ্ট কীর্ত্তনিয়ারা পদাবলী ও একনাম কীর্ত্তন পরিবেশন করবেন। বিশিষ্টজনদের উপস্থিতিতে হবে আলোচনা পর্বও। থাকছে মহাপ্রসাদের ব্যবস্থাও। আগামী উৎসবের বাজেট নির্ধারণ করা হয়েছে ১২ লাখ টাকা। বর্ষিক উৎসবের পাঁচদিনে প্রায় হাজার ত্রিশেক ভক্তের সমাগম ঘটবে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, এই তীর্থক্ষেত্রটি হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার জয়পুর গ্রামে অবস্থিত। পরম বৈষ্ণব ড. মহানামব্রত ব্রহ্মচারী বাহুবলের জয়পুরে ১৯৮১ সালে শ্রীচৈতন্য মহাপ্রভুর মামারবাড়ি আবিষ্কার করেছিলেন। এরপর থেকে মন্দিরটি আন্তর্জাতিক তীর্থক্ষেত্রের পরিচিত পায়। প্রতিদিন মন্দিরে বহু ভক্তের সমাগম ঘটে। এখানে উৎসব উপলক্ষে প্রশাসন বিশেষ নিরাপত্তাব্যবস্থা গ্রহন করে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com