শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১০:০৩ অপরাহ্ন

এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দুদকের অভিযান

নিজস্ব প্রতিবেদক : দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কর্মকর্তারা রোববার (২২ ডিসেম্বর) সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অভিযান পরিচালনা করেছেন।

রোগীদের সিট প্রদানে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে দুদক অভিযোগ কেন্দ্রে (টোল ফ্রি হটলাইন-১০৬) আসা অভিযোগের প্রেক্ষিতে এ অভিযান চালান তারা।
এ নিয়ে কমিশনের এনফোর্সমেন্ট ইউনিট আজ রাজধানীসহ সারাদেশের বিভিন্ন স্থানে ৬টি অভিযান চালিয়েছে।

সিলেটের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. ইসমাইল হোসেনের নেতৃত্বে আজ সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এ অভিযান চালায়। অভিযানকালে টিম জানতে পারে, এ হাসপাতালে রোগী ও স্বজনরা অজ্ঞাত থাকার কারণে বেশ কিছু পেয়িং বেড খালি থাকা সত্ত্বেও রোগীরা সেখানে আসন গ্রহণ করেন না। এ বিষয়ে হাসপাতালের পরিচালক জানান, স্বল্প আয়ের রোগীগণ পেয়িং বেডে থাকতে না চাওয়ায় পেয়িং বেড খালি থাকে, অথচ নন-পেয়িং বেডে রোগীরা আসন পান না। টিম এ সমস্যা দূরীকরণে কিছু সংখ্যক পেয়িং বেডকে নন-পেয়িং বেড হিসেবে ঘোষণার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের সুপারিশ প্রদান করে। একই টিম ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদানে ঘুষ দাবী ও গ্রাহক হয়রানির অভিযোগে সিলেট বিআরটিএতে অভিযান পরিচালনা করে।

এছাড়া রাজধানীর একটি কলেজে ঘুষের বিনিময়ে প্রভাষক হতে সহকারী অধ্যাপক পদে পদোন্নতি প্রদানের অভিযোগে এবং নারায়ণগঞ্জ পাসপোর্ট অফিসে সেবা প্রদানে অনিয়ম, দুর্নীতি ও দালালদের দৌরাত্ম্যের অভিযোগে যথাক্রমে প্রধান কার্যালয় এবং সমন্বিত জেলা কার্যালয়, ঢাকা-১ হতে পৃথক অভিযান পরিচালনা করেছে।

এদিকে দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে গুচ্ছগ্রামের ঘর প্রদানে অনিয়মের অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করেছে দুদক। সমন্বিত জেলা কার্যালয়, দিনাজপুর এর উপপরিচালক আবু হেনা আশিকুর রহমানের নেতৃত্বে আজ এ অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানকালে টিম জানতে পারে, নবাবগঞ্জ উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের বানমারী গ্রামের বাসিন্দাদের জীবনমান উন্নয়নে গুচ্ছগ্রাম প্রকল্পের আওতায় ৫০টি ঘর নির্মাণ করা হয়েছে, তবে এখনো কোন ঘর বরাদ্দ দেওয়া হয়নি। টিমের নিকট অভিযোগ আসে, মাহমুদপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অনৈতিক সুবিধার মাধ্যমে প্রকৃত ভূমিহীনদের বঞ্চিত করে ঘর বরাদ্দ দিচ্ছেন। টিম নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে বিষয়টি অবহিত করে। ইউএনও প্রকৃত ভূমিহীনরা যাতে ঘর বরাদ্দ পায় বিষয়টি নিশ্চিত করার আশ্বাস দেন।

একই টিম নবাবগঞ্জ উপজেলায় সড়ক উন্নয়ন কাজে অনিয়মের অভিযোগ অভিযান পরিচালনা করে। টিমের প্রাথমিক পর্যালোচনায় নির্মাণাধীন নবাবগঞ্জ-ভাদুরিয়া সড়কের কাজটি নিম্নমানের হয়েছে বলে প্রতীয়মান হয়। নির্মাণকাজটি প্রাথমিক পর্যায়ে থাকায় টিমের পক্ষ হতে যথাযথ মান নিশ্চিত করে কাজ স¤পাদনের নির্দেশনা প্রদান করা হয়।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com