রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ১০:৪৯ অপরাহ্ন

ঢাবিতে চার দফা দাবি নিয়ে ১২ ছাত্র সংগঠনের নতুন জোট

তরফ নিউজ ডেস্ক : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের ভিপি নুরুল হক নুর এবং সাধারণ শিক্ষার্থীদের উপর হামলার বিচারসহ ৪ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে ১২টি ছাত্র সংগঠন একত্রিত হয়ে ‘সন্ত্রাসবিরোধী ছাত্র ঐক্য’ নামে নতুন একটি জোট আত্নপ্রকাশ করেছে। তবে এই জোটের সাথে সম্পৃক্ত নেই দেশের অন্যতম বৃহৎ ছাত্র সংগঠন ছাত্রদল।

শুক্রবার (২৭ ডিসেম্বর) বিকাল ৩টায় ঢাবির মধুর ক্যান্টিনে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে জোটের আনুষ্ঠানিক আত্নপ্রকাশের ঘোষণা দেওয়া হয়।

সংবাদ সম্মেলন থেকে জানা যায় , বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রী, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন, বিপ্লবী ছাত্র যুব আন্দোলন, বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ, নাগরিক ছাত্র ঐক্য, ছাত্র গণমঞ্চ এবং স্বতন্ত্র ছাত্রজোটের সমন্বয়ে এই জোট গঠন করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ন আহবায়ক আখতার হোসেন।

তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে ক্যাম্পাসগুলোতে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীরা। ক্ষমতার অপব্যবহার করে তারা ছাত্রদের জোর করে মিছিল-মিটিংয়ে নিয়ে যায়। বিভিন্ন ক্যাম্পাসে তাদের দখলদারিত্ব চলছে। ক্যাম্পাসে যেন কেউ আর সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড না চালাতে পারে তা নিশ্চিত করাই আমাদের এই সংগঠনের উদ্দেশ্য।

ছাত্রদলকে এই সংগঠনে রাখা হয়নি কেন এমন প্রশ্নের জবাবে সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সভাপতি আল কাদেরী জয় বলেন, ছাত্রদলের অতীত ইতিহাস ভাল না। ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় তারা সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত ছিল। সবকিছু বিবেচনায় আমরা ছাত্রদলকে এই সংগঠনের বাইরে রেখেছি।

সংবাদ সম্মেলনে ‘সন্ত্রাসবিরোধী ছাত্র ঐক্য’ তাদের ৪ দফা দাবি ঘোষণা করে। দাবিগুলো হল-
১. ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুরসহ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলাকারীদের বহিষ্কার ও বিচার করতে হবে।
২. ঢাকা বিশ্ববিদ্যলয়ের প্রক্টর গোলাম রাব্বানিকে অপসারণ করতে হবে।
৩. হামলার আহতদের চিকিৎসার ব্যায়ভার প্রশাসনকে নিতে হবে।
৪. ক্যাম্পাসে গণতান্ত্রিক পরিবেশ এবং নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে এবং হলে হলে দখলদারিত্ব, গণরুম, গেস্টরুম নির্যাতন বন্ধ করতে হবে।

উল্লেখ্য, বিগত ২২ ডিসেম্বর ডাকসু ভবনে ভিপি নুরুল হক নুর ও তার সংগঠনের নেতাকর্মীদের উপর মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ করেন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতাকর্মীরা। হামলায় নুর ও তার সংগঠনের ১৭ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

হামলার ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে শাহবাগ থানায় একটি মামলা করেছে। তবে পুলিশের করা মামলায় ছাত্রলীগ নেতাদের নাম না থাকায় নুর নিজেও শাহবাগ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

একই দিনে হামলার ঘটনায় নুরুল হক নুরসহ অজ্ঞাত ২৯ জনের নাম উল্লেখ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েরর শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হল শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ডিএম সাব্বির বাদি হয়ে শাহবাগ থানায় মামলা করেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com