মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৯:০০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ঘূর্ণিঝড় রেমাল: ১৯ উপজেলার নির্বাচন স্থগিত বাহুবল উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অবাদ, সুন্দর ও দাঙ্গামুক্তভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে বাসার ছাদে আম পাড়তে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শিশুর মৃত্যু রেমাল পরিণত প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে, মহাবিপদ সংকেত বাহুবলে ৫ আওয়ামীলীগ নেতাকে হারিয়ে আলেম চেয়ারম্যান নির্বাচিত শান্তিপূর্ণ ও বিশ্বাস যোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠিত করতে পুলিশ বদ্ধপরিকর- এসপি আক্তার হোসেন জনগণ যাকে ভালবাসবে, দায়িত্ব দিতে চাইবে, তাকেই দেবে- জেলা প্রশাসক বাহুবলে বিয়ের আনন্দ-ফুর্তি চলাকালে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবতীর মুত্যু বাহুবল উপজেলা নির্বাচন : ২০ প্রার্থীর মাঝে নির্বাচনী প্রতীক বরাদ্দ বাহুবল উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

হবিগঞ্জ-৩ এর লাঙ্গল নৌকায় তুলে দিলেন আতিক

নিজস্ব প্রতিবেদক: আবু জাহিরকে সমর্থন দিয়ে হবিগঞ্জ-৩ ( সদর-লাখাই-শায়েস্তাগঞ্জ) এর  লাঙ্গল নৌকায় তুলে দিলেন জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম সদস্য ও জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি আতিকুর রহমান আতিক। তবে হবিগঞ্জ-১ (নবীগঞ্জ-বাহুবল) আসনে তিনি নির্বাচন করবেন।

সোমবার রাতে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে হবিগঞ্জ-৩ আসনে নির্বাচন থেকে সড়ে যাওয়ার কথা ঘোষনা দেন তিনি।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তিনি বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমাকে হবিগঞ্জ-১ ও হবিগঞ্জ-৩ আসনে মনোনয়ন দেয়া হয়। বর্তমানে দলের কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত মোতাবেক আমাকে শুধুমাত্র হবিগঞ্জ-১ আসনে প্রতিদ্বন্ধিতা করার জন্য দলের পক্ষ থেকে সিদ্ধান্ত দেয়া হয়েছে। আমাকে হবিগঞ্জ-৩ আসনে প্রতিদ্বন্ধিতা না করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। দলের কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত মোতাবেক হবিগঞ্জ-৩ আসন থেকে মহাজোটের সমর্থনে আমি নির্বাচন থেকে সরে দাড়ালাম। দলের কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত মোতাবেক শুধুমাত্র হবিগঞ্জ-১ (নবীগঞ্জ-বাহুবল) আসনে প্রতিদ্বন্ধিতা করব।

তিনি দলের নেতাকর্মী এবং নবীগঞ্জ-বাহুবলবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে লাঙ্গলের পক্ষে তাকে বিজয়ী করার আহবান জানান।

এদিকে, জাতীয় পার্টি সূত্রে জানা যায়, আতিকুর রহমান আতিক হবিগঞ্জের নেতাকর্মীদেরকে নৌকার পক্ষে কাজ করার জন্য নির্দেশ প্রদান করেছেন।

এ ব্যাপারে জেলা জাতীয় পার্টির সাংগঠনিক সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম তৌহিদ বলেন, হবিগঞ্জ-৩ আসনটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এখানে দুইজন প্রার্থী থাকলে ভোট বিভক্ত হওয়ার সম্ভাবনা ছিল। আতিকুর রহমান আতিক নির্বাচন থেকে সরে গিয়ে আমাদেরকে মৌখিকভাবে নৌকার পক্ষে কাজ করার কথা বলেছেন। আমরা মিটিং করে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিব।

এদিকে, জাতীয় পার্টির প্রার্থীর নির্বাচন থেকে সরে দাড়ানোর সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। হবিগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট আব্দুল আহাদ ফারুক বলেন, জাতীয় পার্টির এই সিদ্ধান্ত মহাজোটের জন্য কল্যাণকর। জেলা সদরের আসনে দুইজন প্রার্থী থাকলে প্রতিপক্ষ সুবিধা পেয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা ছিল। এখন বিপুল ভোটে নৌকা বিজয়ী হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

হবিগঞ্জর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার ফজলুল জাহিদ পাভেল জানান, নির্ধারিত সময়ে মনোনয়ন প্রত্যাহার না করায় ব্যালটে লাঙ্গল প্রতীক থাকবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com