বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৯:০৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :

কোন ক্ষেত্রে দূর্নীতি ও ক্ষমতার অপব্যবহার করা যাবে না : এলজিআরডি মন্ত্রী

আরিফুর রহমান স্বপন, লাকসাম (কুমিল্লা) : গ্রামগঞ্জে উন্নত জীবনের সুযোগ সুবিধা পৌঁছানোর প্রতিশ্রুতি দিয়ে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নপূরনের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকারের লক্ষ্য হলো উন্নত বাংলাদেশ গড়া। এ লক্ষ্য অর্জনে ইতিমধ্যে কাজ শুরু করেছে তার সরকার। ওই কাজের ক্ষেত্রে কোন ভাবে দূর্নীতি ও ক্ষমতার অপব্যবহার করা যাবে না।

মন্ত্রী পরিষদের দায়িত্ব নেয়ার পর প্রথম নিজ এলাকা কুমিল্লার লাকসাম দলীয় কার্যালয়ে শনিবার (১২ জানুয়ারি) রাজনৈতিক, সামাজিক ও বিভিন্ন পেশাজীবি সংগঠনের ফুলেল শুভেচ্ছা গ্রহণকালে এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রী আরও বলেন, আগামী পাঁচ বছর হবে অত্যন্ত চমকপ্রদ উন্নয়নের বাংলাদেশ ও গ্রামগঞ্জে সর্বত্র উন্নত জীবনযাপনের সকল সুযোগ সুবিধা। যা সারা পৃথিবীকে তাক লাগিয়ে দেয়ার মতো।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামীলীগ সরকার এ উন্নয়নের লক্ষ্য থেকে বিচ্যুত হবে না মন্তব্য করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেন, উন্নত বাংলাদেশ গড়ার জন্য যে লক্ষ্য নিয়ে আমাদের সরকার এগিয়ে যাচ্ছে এসময় এ বাংলাদেশ হবে হংক, সিংগাপুরের মতো উন্নত ও সুন্দর দেশ। গ্রাম হবে শহর, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এ উক্তিকে লক্ষ্যে পৌঁছাতে গ্রামের প্রতিটি পাড়া মহল্লায় ব্যাপক উন্নয়ন করতে হবে। গ্রামে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখলে গ্রামকে শহরে উন্নীত করা সম্ভব হবে।

উন্নত বাংলাদেশ গড়তে গ্রামগঞ্জে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা কোটি মানুষের উন্নয়নের বিকল্প নেই উল্লেখ করে মন্ত্রী আরও বলেন, আগামী পাঁচ বছরে দেশে প্রতিটি গ্রামে শহরের সুযোগ সুবিধা পৌঁছে দিতে হবে।

দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে মন্ত্রী বলেন, আমাদের সরকার রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছে। ব্যবসা বানিজ্য চাকুরী ক্ষেত্রে আমাদের দলের লোকেরা অগ্রঅধিকার পেলেও ১৬ কোটি মানুষের জীবন মানের কথা চিন্তা করে কোন ক্ষেত্রে কাউকে অন্যায় ভাবে হয়রানী করা যাবে না। মানুষের সাথে ভাল আচার ব্যবহার করলেই এদেশের মানুষ উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে বার বার আওয়ামীলীগ সরকারকে নির্বাচিত করবে।

লাকসাম দলীয় কার্যালয়ে ফুলেল শুভেচ্ছা গ্রহণকালে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এলজিইডি কুমিল্লা অঞ্চলের তত্ত্বাবধায় প্রকৌশলী মোখলেছুর রহমান, নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ সোহরাব আলী, জেলা পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মামুন, উপজেলা চেয়ারম্যান এডভোকেট ইউনুছ ভূঁইয়া, উপজেলা নির্বাহী অফিসার একেএম সাইফুল আলম, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইসমাইল হোসেন, জেলা পরিষদ সদস্য এডভোকেট আবু তাহের, এডভোকেট তানিজনা আক্তার, পৌর মেয়র অধ্যাপক আবুল খায়ের, উপজেলা প্রকৌশলী খোন্দকার গোলাম শওকত, পৌরসভা আওয়ামীলীগের সভাপতি তাবারক উল্যাহ কায়েস, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট রফিকুল ইসলাম হিরা প্রমুখ।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com