রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ০৪:৫৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বাহুবলে ৫ আওয়ামীলীগ নেতাকে হারিয়ে আলেম চেয়ারম্যান নির্বাচিত শান্তিপূর্ণ ও বিশ্বাস যোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠিত করতে পুলিশ বদ্ধপরিকর- এসপি আক্তার হোসেন জনগণ যাকে ভালবাসবে, দায়িত্ব দিতে চাইবে, তাকেই দেবে- জেলা প্রশাসক বাহুবলে বিয়ের আনন্দ-ফুর্তি চলাকালে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবতীর মুত্যু বাহুবল উপজেলা নির্বাচন : ২০ প্রার্থীর মাঝে নির্বাচনী প্রতীক বরাদ্দ বাহুবল উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত বাহুবলে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২ বাহুবল হাসপাতালের নতুন ব্যবস্থাপনা কমিটি প্রথম সভা বাহুবলে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের বাছাইয়ে দুই প্রার্থীর মনোনয়নপত্র অবৈধ বাহুবল উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ২০ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল

চৌদ্দগ্রামে ট্রাক উল্টে নিহত ১৩ শ্রমিকের বাড়ি নীলফামারী

ছেলেকে হারিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েছেন এক মা।

তরফ নিউজ ডেস্ক: কুমিল্লায় ইটভাটায় শ্রমিক ছাউনিতে কয়লার ট্রাক উল্টে নিহত ১৩ শ্রমিকের সবার বাড়ি নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলায়।

এ সংবাদ প্রকাশের পর শোকের ছায়ায় ঢেকে গেছে নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলা।

সেসব শ্রমিকদের বাড়িতে এখন চলছে কান্না আর আহাজরি।

জানা গেছে, এসব শ্রমিকরা প্রত্যেকেই ছিলেন তাদের সংসারের একমাত্র উপার্জনকারী।

ইতিমধ্যে জলঢাকার দুই ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যানরা নিহতদের পরিচয় ও নামের তালিকা সংগ্রহ করেছেন বলে জানিয়েছেন জলঢাকা থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান।

ওই দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন- জলঢাকা উপজেলার নিজপাড়া গ্রামের রঞ্জিত চন্দ্র রায় (৩০), তরুণ চন্দ্র রায় (২৫), সংকর চন্দ্র রায় (২২), দিপু চন্দ্র রায় (১৯) ও অমিত চন্দ্র রায় (২০), পাঠানপাড়া গ্রামের মো. মোরসালিন (১৮), মো. মাসুম (১৮), মো. সেলিম (২৮) ও রামপ্রসাদের ছেলে বিল্লব (১৯), শিমুলবাড়ি গ্রামের মনোরঞ্জন রায় (১৯) ও মিনাল চন্দ্র রায় (২১) এবং রাজবাড়ি গ্রামের বিকাশ চন্দ্র রায় (২৮) ও কনক চন্দ্র রায় (৩৪)।

নিহত শ্রমিকদের বাড়িতে বাড়িতে প্রতিবেশী ও স্বজনরা ছুটে এসে তাদের সান্তনা জানাচ্ছেন।

নিহতদের পরিবারের সঙ্গে ইতিমধ্যে স্থানীয় উপজেলা প্রশাসন থেকে যোগাযোগ করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

জেলা প্রশাসক নাজিয়া শিরিণ শ্রমিকদের পরিবারের প্রতি শোক ও সমবেদনা জানিয়ে বলেন,

নিহত শ্রমিকদের প্রতিটি পরিবারকে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করা হবে। জানা গেছে, নিহত ১৩ শ্রমিকের প্রত্যেকের পরিবারের জন্য কুমিল্লা জেলা প্রশাসন থেকে ২০ হাজার টাকা ও ইট ভাটার মালিকের পক্ষ থেকে ১০ হাজার টাকা অনুদানের ঘোষণা এসেছে।

প্রসঙ্গত, আজ শুক্রবার ভোরে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার গোলপাশা ইউনিয়নের নারায়নপুর এলাকায় কাজী অ্যান্ড কোং নামক ইট ভাটায় ট্রাক থেকে কয়লা আনলোড করার সময় হঠাৎ তা উল্টে গিয়ে ভাটার লেবার শেডের ঘুমন্ত শ্রমিকদের ওপর পড়ে।

এতে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই ১২ শ্রমিকের মৃত্যু হয়।

খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন, ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার অভিযান শুরু করে। এ সময় মারাত্মক আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পর আরও একজনের মৃত্যু হয়।

 

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com