শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০১:১০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বাহুবলে ভূমি সেবা সপ্তাহের উদ্বোধন বাহুবলে জাতীয় পুষ্টি সেবা কার্যক্রমের আওতায় কর্মশালা অনুষ্ঠিত ফয়জাবাদ হাই স্কুলের সভাপতি সামিউল ইসলাম ঘূর্ণিঝড় রেমাল: ১৯ উপজেলার নির্বাচন স্থগিত বাহুবল উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অবাদ, সুন্দর ও দাঙ্গামুক্তভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে বাসার ছাদে আম পাড়তে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শিশুর মৃত্যু রেমাল পরিণত প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে, মহাবিপদ সংকেত বাহুবলে ৫ আওয়ামীলীগ নেতাকে হারিয়ে আলেম চেয়ারম্যান নির্বাচিত শান্তিপূর্ণ ও বিশ্বাস যোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠিত করতে পুলিশ বদ্ধপরিকর- এসপি আক্তার হোসেন জনগণ যাকে ভালবাসবে, দায়িত্ব দিতে চাইবে, তাকেই দেবে- জেলা প্রশাসক

কুমিল্লায় চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার প্রধান আসামী বাপ্পী গ্রেফতার

আরিফুর রহমান স্বপন, কুমিল্লা : র‌্যাব-১১, সিপিসি-২, কুমিল্লা ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার (২৯ জানুয়ারি) রাতে কুমিল্লা কোতোয়ালি থানার লক্ষীপুর এলাকা থেকে চাঞ্চল্যকর কাউছার হত্যা মামলার পলাতক প্রধান আসামী জাহিদ হাসান বাপ্পীকে (২০) গ্রেফতার করেছে।

সে কুমিল্লা কোতোয়ালি থানার ঝাকুনি পাড়ার জামাল মিয়ার ছেলে।

র‌্যাব জানায়, ২০১৭ সালের ১ জুলাই সকালে কুমিল্লা পদুয়ার বাজার বিশ্বরোডস্থ ঢাকা-চট্টগ্রাম রেললাইনের পার্শ্বে কাউছার নামে এক যুবককে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় লোকজন তার পরিবারের সদস্যদের খবর দেয়। ওই সময় পরিবারের সদস্যরা আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে কাউছার মারা যায়। ওই সময় স্বজনদের ধারনা ছিল কাউছার ট্রেনের ধাক্কা খেয়ে আহত হয়ে পরবর্তীতে মারা গেছে।

কাউছার কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার দীঘলগাঁও গ্রামের আবদুল হকের ছেলে।

এদিকে ঘটনার প্রায় ৬ মাস পর প্রত্যক্ষ্যদর্শী বিভিন্ন ব্যক্তিদের নিকট হতে নিহত  কাউছারের নিকটাত্মীয়রা ওই সময়ের ঘটনায় কাউছার নিহত হওয়ার বিষয়ে চাঞ্চল্যকর হত্যার খবর জানতে পেরে কুমিল্লার বিজ্ঞ আদালতে একটি এজাহার দায়ের করলে বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশে লাকসাম রেলওয়ে থানার মামলা নং-০১ তারিখ ০১/২/২০১৮, ধারা ২০১/৩০২/৩৪ দঃ বিঃ রুজু করে।

মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা মামলার তদন্তকালে বিজ্ঞ আদালতের অনুমতি নিয়ে লাকসাম উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ ইসমাইল হোসেনের উপস্থিতিতে কাউছারের লাশ কবর হতে উত্তোলন করে সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুতসহ ময়না তদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। ময়না তদন্তে মামলার আসল রহস্য বেরিয়ে আসে এবং আসামী জাহিদ হাসান বাপ্পী (২০) সহ এজাহার নামীয় অপরাপর আসামীদের বিরুদ্ধে স্বাক্ষ্য-প্রমাণ পাওয়া যায়। মামলা রুজুর পর হতে আসামী বাপ্পী পলাতক ছিল।

সম্প্রতি মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মোঃ মিছবাহুল আলম চৌধুরীর নিকট থেকে অধিযাচন পত্র পেয়ে মামলাটির বিষয়ে র‌্যাব-১১, সিপিসি-২, কুমিল্লা ক্যাম্প ছায়া তদন্ত শুরু করে।

এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার রাতে প্রধান আসামী জাহিদ হাসান বাপ্পীকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। গ্রেপ্তারের পর আসামী বাপ্পী নিহত কাউছার হত্যার চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ করে।

গ্রেফতারকৃত আসামি বাপ্পী র‌্যাবকে জানায়, এজাহার নামীয় অপরাপর আসামিদের সহায়তায় কুমিল্লা পদুয়ার বাজার বিশ্বরোডস্থ উল্লাস বাস কাউন্টারে চাকুরীকালে অবৈধভাবে উপার্জিত টাকা-পয়সার ভাগ-বাটোয়ারা নিয়া আক্রোশ এবং ০১টি চোরাই মোবাইলের ভাগের টাকা না দেওয়ার আক্রোশে কাউসারকে ঘটনার দিন রাত ২ টা হইতে ভোর ৬টার মধ্যে কুমিল্লা পদুয়ার বাজার বিশ্বরোডস্থ আল শাকিল হোটেলে ইয়াবা ট্যাবলেট সেবন করিয়ে তাকে অর্ধ মাতাল অবস্থায় ভোর বেলায় পাশ্ববর্তী বিশ্বরোডস্থ ঢাকা-চট্টগ্রাম রেললাইনে নিয়ে রড দিয়ে হাতে ও মাথায় আঘাত করে গুরুতর রক্তাক্ত জখমসহ মুমূর্ষ অবস্থায় রেললাইনের পার্শ্বে ফেলে যায়।

ওই ঘটনায় গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে তাকে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার নিকট হস্তান্তর করা হয়। পরবর্তীতে আসামী কুমিল্লার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট শারমীন দীনার আমলি আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী প্রদান করে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com