বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৭:৫১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ঘূর্ণিঝড় রেমাল: ১৯ উপজেলার নির্বাচন স্থগিত বাহুবল উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অবাদ, সুন্দর ও দাঙ্গামুক্তভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে বাসার ছাদে আম পাড়তে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শিশুর মৃত্যু রেমাল পরিণত প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে, মহাবিপদ সংকেত বাহুবলে ৫ আওয়ামীলীগ নেতাকে হারিয়ে আলেম চেয়ারম্যান নির্বাচিত শান্তিপূর্ণ ও বিশ্বাস যোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠিত করতে পুলিশ বদ্ধপরিকর- এসপি আক্তার হোসেন জনগণ যাকে ভালবাসবে, দায়িত্ব দিতে চাইবে, তাকেই দেবে- জেলা প্রশাসক বাহুবলে বিয়ের আনন্দ-ফুর্তি চলাকালে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবতীর মুত্যু বাহুবল উপজেলা নির্বাচন : ২০ প্রার্থীর মাঝে নির্বাচনী প্রতীক বরাদ্দ বাহুবল উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

কিউই পেস আর গাপটিলে ঘায়েল মাশরাফি বাহিনী

স্পোর্টস ডেস্ক : কিউই পেসের জবাবই খুঁজে পাচ্ছে না বাংলাদেশ। টানা দ্বিতীয় ম্যাচে তামিমরা কিউই পেসারদের সামনে অসহায় আত্মসমর্পণ করলেন। ক্রাইস্টচার্চের স্পোর্টিং পিচে কমপক্ষে ৩০০ ছুঁইছুঁই রান না করলে জেতা যেখানে প্রায় অসম্ভব, সেখানে ২২৬ রান তো মামুলি সংগ্রহ। পরে নির্বিষ বোলিং আর গাপটিলের ঝড়ো সেঞ্চুরিতে সর্বনাশের ষোলোকলা পূর্ণ করে সিরিজই খুইয়ে বসেছে টাইগাররা।

সিরিজের প্রথম ম্যাচের মতো দ্বিতীয় ম্যাচেও ৮ উইকেটে হেরে গেছে বাংলাদেশ। আগের ম্যাচের সঙ্গে এই ম্যাচের মিল আছে আরও। আগের ম্যাচে শুরুতে ব্যাট করতে নেমে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছিলেন তামিম-লিটন দাসরা। এই ম্যাচেও তার ব্যতিক্রম হয়নি। আগের ম্যাচে দলের হয়ে সর্বোচ্চ (৬২) রান করেছিলেন মোহাম্মদ মিঠুন। এই ম্যাচেও তাই (৫৭)। আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন কিউই ওপেনার মার্টিন গাপটিল। এই ম্যাচেও তাই।

২২৭ রানের টার্গেট নিয়ে ব্যাট করতে নেমে টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে বাংলাদেশকে ম্যাচ থেকে ছিটকে দিয়েছেন কিউই ওপেনার মার্টিন গাপটিল। সেঞ্চুরি তুলে নিয়ে ফের একবার অপরাজিত থেকেই মাঠ ছাড়ার পথে ছিলেন তিনি। তবে এবার আর তা হলো না। ৮৮ বলে ১১৮ রান করে টাইগার পেসার মোস্তাফিজুর রহমানের বলে লিটন দাসের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন তিনি। কিন্তু যাওয়ার আগে বোলারদের উপর স্টিম রোলার চালিয়ে গেছেন। তার ব্যাট থেকে এসেছে ১৪টি বাউন্ডারি আর ৪টি ছক্কা।

গাপটিল বিদায় নিলেও বাকি পথটা সহজেই পাড়ি দিয়েছেন ৮ ম্যাচে প্রথম ফিফটির দেখা পাওয়া কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। ৮৬ বলে অপরাজিত ৬৫ রান করা উইলিয়ামসনের ব্যাট থেকে এসেছে ৩টি চার। তাকে শেষ পর্যন্ত সঙ্গ দিয়ে গেছেন আরেক অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান রস টেইলর (অপরাজিত ২১)।

বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে একমাত্র উইকেট শিকারি মোস্তাফিজ। ৯ ওভারে ৪২ রানে ২ উইকেট নিয়েছেন এই বাঁহাতি ‘কাটার মাস্টার’। বাকিদের বোলিং ফিগার উল্লেখ করার মতো নয়।

শনিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) ভোর ৪টায় মাঠে গড়িয়েছে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচ। প্রথম ম্যাচের মতো এই ম্যাচেও ব্যাট হাতে ব্যর্থ টাইগাররা। কিউই পেসারদের দাপুটে বোলিংয়ে ২২৬ রানেই গুটিয়ে গেছেন তামিমরা।

আগের ম্যাচের মতো এই ম্যাচেও ব্যর্থ বাংলাদেশের ওপেনিং জুটি। ইনিংসের তৃতীয় ওভারেই বিদায় নেন লিটন দাস। সপ্তম ওভারে তার পিছু নেন তামিমও (৫)। মাঝে কিছুটা চেষ্টা করেছিলেন সৌম্য সরকার (২২) ও মুশফিক (২৪)। কিন্তু ইনিংস দীর্ঘায়িত করতে পারেননি। অথচ আজকের পিচ ছিল স্পোর্টিং পিচ। কিউইদের ব্যাটিং দেখলেই তা বুঝা যায়।

দলের বিপর্যয়ে ফের ব্যাট হাতে দাঁড়িয়ে গিয়েছিলেন মোহাম্মদ মিঠুন। তার ব্যাট থেকে এসেছে ৬৯ বলে ৫৭ রান। ৭ চার ও ১ ছক্কায় সাজানো ইনিংসটি। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪৩ রান এসেছে সাব্বির রহমানের ব্যাট থেকে। বাকিদের ছোট ছোট ইনিংস মিলিয়ে ৪৯.৪ ওভারে ২২৬ রানেই গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ।

এই হারে ২-০ ব্যবধানে পিছিয়ে থেকে সিরিজ খুইয়েছে বাংলাদেশ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ: ৪৯.৪ ওভারে ২২৬ (তামিম ৫, লিটন ১, সৌম্য ২২, মুশফিক ২৪, মিঠুন ৫৭, মাহমুদউল্লাহ ৭, সাব্বির ৪৩, মিরাজ ১৬, সাইফ ১০, মাশরাফি ১৩, মুস্তাফিজ ৫*; হেনরি ১০-২-৩০-১, বোল্ট ১০-১-৪৯-১, ডি গ্র্যান্ডহোম ৪-০-২৫-১, ফার্গুসন ১০-০-৪৩-৩, অ্যাস্টল ১০-০-৫২-২, নিশাম ৫.৪-০-২১-২)।

নিউ জিল্যান্ড: ৩৬.১ ওভারে ২২৯/২ (গাপটিল ১১৮, নিকোলস ১৪, উইলিয়ামসন ৬৫*, টেইলর ২১*; মাশরাফি ৬-০-৩৭-০, সাইফ ৬-০-৪৪-০, মিরাজ ৭.১-০-৪২-০, মুস্তাফিজ ৯-০-৪২-২, সাব্বির ৪-০-২৮-০, সৌম্য ১-০-১০-০, মাহমুদউল্লাহ ৩-০-২৫-০)।

ফল: নিউ জিল্যান্ড ৮ উইকেটে জয়ী

সিরিজ: ৩ ম্যাচ সিরিজে নিউ জিল্যান্ড ২-০তে এগিয়ে

ম্যান অব দা ম্যাচ: মার্টিন গাপটিল

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com