মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৯:০০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ঘূর্ণিঝড় রেমাল: ১৯ উপজেলার নির্বাচন স্থগিত বাহুবল উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অবাদ, সুন্দর ও দাঙ্গামুক্তভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে বাসার ছাদে আম পাড়তে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শিশুর মৃত্যু রেমাল পরিণত প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে, মহাবিপদ সংকেত বাহুবলে ৫ আওয়ামীলীগ নেতাকে হারিয়ে আলেম চেয়ারম্যান নির্বাচিত শান্তিপূর্ণ ও বিশ্বাস যোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠিত করতে পুলিশ বদ্ধপরিকর- এসপি আক্তার হোসেন জনগণ যাকে ভালবাসবে, দায়িত্ব দিতে চাইবে, তাকেই দেবে- জেলা প্রশাসক বাহুবলে বিয়ের আনন্দ-ফুর্তি চলাকালে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবতীর মুত্যু বাহুবল উপজেলা নির্বাচন : ২০ প্রার্থীর মাঝে নির্বাচনী প্রতীক বরাদ্দ বাহুবল উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

বাহুবলে কুকুরের জলাতঙ্ক প্রতিষেধক টিকাদান কার্যক্রমের প্রস্তুতি সভা

অবহিতকরণ সভায় বক্তব্য রাখছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. বাবুল কুমার দাশ

বাহুবল (হবিগঞ্জ) সংবাদদাতা : বাহুবলে জাতীয় জলাতঙ্ক নির্মূল কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (১৩ নভেম্বর) সকাল ১১টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সভাকক্ষে উক্ত সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. বাবুল কুমার দাশের সভাপতিত্বে ও ইপিআই টেকনিশিয়ান উস্তার মিয়া তালুকদারের পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা প্রাণীসম্পদ অফিসার আমজাদ হোসেন ভূঞা, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল মজিদ, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. রত্নদীপ বিশ্বাস, সাতকাপন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহ আব্দাল মিয়া, বাহুবল মডেল প্রেস ক্লাবের সভাপতি নূরুল ইসলাম নূর ও ভেটেনারি সার্জন ডা. ফেরদৌস আলম প্রমুখ।

জলাতঙ্কের লক্ষণ প্রকাশের পর শতভাগ ক্ষেত্রে মৃত্যু অবধারিত। অথচ এ রোগটি এখন আধুনিক ব্যবস্থাপনায় শতভাগ প্রতিরোধযোগ্য

উল্লেখ্য, ২০২২ সালে বাংলাদেশ থেকে জলাতঙ্ক মুক্ত করার লক্ষ্যে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, স্থানীয় সরকার বিভাগ, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় এবং প্রাণীসম্পদ মন্ত্রণালয়ের যৌথ উদ্যোগে দেশব্যাপী ব্যাপকহারে কুকুরের জলাতঙ্ক প্রতিষেধক টিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় আগামী ১৬ নভেম্বর থেকে ২০ নভেম্বর পর্যন্ত বাহুবল উপজেলা কুকুরের জলাতঙ্ক প্রতিষেধক টিকাধান কার্যক্রম চলবে।

সভায় ডা. বাবুল কুমার দাশ বলেন, জলাতঙ্ক একটি ভয়ংকর মরণব্যাধি, এ রোগে মৃত্যুর হার শতভাগ। পৃথিবীতে কোথাও না কোথাও প্রতি দশ মিনিটে একজন এবং প্রতি বছরে প্রায় ৫৫ হাজার মানুষ জলাতঙ্ক রোগে মারা যায়। জলাতঙ্ক রোগটি মূলত কুকুরের কামড় বা আচঁড়ের মাধ্যমে ছড়ায়। এছাড়াও বিড়াল, শিয়াল, বেজী, বানরের কামড় বা আচঁড়ের মাধ্যমেও এ রোগ হতে পারে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com