শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ০৯:৫৮ অপরাহ্ন

সিলেটে বাস থেকে ফেলে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রকে হত্যা

নিহত ওয়াসিম আব্বাসের ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক : ভাড়া নিয়ে বাগ-বিতণ্ডার জের ধরে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শেষ বর্ষের ছাত্র ওয়াসিম আব্বাসকে চলন্ত বাস থেকে ফেলে হত্যার অভিযোগ করেছে শিক্ষার্থীরা। শনিবার (২৩ মার্চ) বিকালে সিলেটের শেরপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় রাতে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সিলেটের কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল এলাকায় বিক্ষোভ করেছে।

পরিস্থিতি মোকাবিলায় ওই এলাকায় বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। নিহত ছাত্র ওয়াসিম আব্বাসের বাড়ি হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলায়। সে বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োটেকনোলজি বিভাগের শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী। ওয়াসিম আব্বাস সকালে তার বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন বন্ধুকে নিয়ে নিজ এলাকায় বিয়ের অনুষ্ঠানে যান।

বিকালে তারা নবীগঞ্জের টোলপ্লাজায় আসেন। সেখান থেকে সিলেট-ময়মনসিংহ রুটে চলাচলকারী উদার পরিবহনের একটি বাসে সিলেটের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। পার্শ্ববর্তী শেরপুরে আসার আগে ভাড়া নিয়ে বাসের চালকের সহকারীর সঙ্গে বাগ বিতন্ডা হয় আব্বাসের। ভাড়া নিয়ে বনিবনা না হওয়ায় এক পর্যায়ে তাদেরকে শেরপুরে নামিয়ে দেয়া হয়। তবে বাসে থেকে যান ওয়াসিম আব্বাস। তিনি বাস থেকে নামার আগেই বাসটি ছেড়ে দেয়। এ সময় বাসের সহকারী দরজা বন্ধ করে দেয়।

কিছু সময় দরজায় ঝুলে থেকে এক পর্যায়ে তিনি বাসের নিচে চাপা পড়েন। ওয়াসিমের বন্ধুরা জানিয়েছে- ওয়াসিম নামার আগেই বাসটি ছেড়ে দেয়। এক পর্যায়ে ওয়াসিম বাসের চাকার নিচে চাপা পড়ে গুরুতর আহত হয়। পরে দ্রুত তাকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ওয়াসিমকে মৃত ঘোষণা করেন।

সিকৃবি’র ছাত্র শিপলু রায় অভিযোগ করে- তারা সিলেট-ময়মনসিংহ সড়কে নামার সময় হেলপার তাদের ধাক্কা দেয় এবং জোর করে দরজা লাগিয়ে দেয়াতে ওয়াসিম বাসের নিচে চাপা পড়ে। হাইওয়ে পুলিশ জানিয়েছে- পরে স্থানীয়রা বাসটিকে ওসমানী নগরের বেগমপুর এলাকা থেকে ধাওয়া করে আটক করেছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com