রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ১০:০৭ অপরাহ্ন

সিলেট থেকে ১৩ নারী সংসদে যেতে চান

তরফ নিউজ ডেস্ক : নির্বাচনী ডামাঢোল এখন বাংলাদেশের আনাচে-কানাচে। একাদশ জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে দলীয় মনোনয়নের প্রত্যাশায় নেতা-নেত্রীরা। এবার সিলেট বিভাগে ১১টি আসনে সংসদ সদস্য পদে সরাসরি নির্বাচন করতে চান ১২ নারী নেত্রী। এঁদের মধ্যে চারজন বর্তমান সাংসদ, তবে দু’জন সংরক্ষিত আসনের সাংসদ।

সিলেট বিভাগের সিলেট জেলায় ছয়টি সংসদীয় আসন রয়েছেন। তন্মধ্যে তিনটি আসনে দলীয় মনোনয়ন চান চারজন নারী নেত্রী। মর্যাদাপূর্ণ সিলেট-১ আসনে (সদর উপজেলা ও সিটি করপোরেশনের একাংশ) বিএনপি থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশী মহিলাদল নেত্রী ডা. নুরুন্নাহার বেগম। তিনি দলীয় মনোনয়ন ফরম পূরণ করে জমা দিয়েছেন।

সিলেট-২ আসনে (বিশ্বনাথ-ওসমানীনগর উপজেলা) বিএনপি থেকে এবার মনোনয়ন চেয়েছেন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা তাহসিনা রুশদীর লুনা। বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ‘নিখোঁজ’ ইলিয়াস আলীর স্ত্রী লুনার মনোনয়ন প্রায় নিশ্চিত। ২০১২ সালের ১৭ এপ্রিল রাতে ঢাকার বনানী থেকে ইলিয়াস ‘নিখোঁজ’ হওয়ার পর থেকে লুনাই এ আসনভুক্ত দুই উপজেলা বিএনপির দেখভাল করছিলেন। একই আসনে জাতীয় পার্টি থেকে মনোনয়ন চেয়েছেন দলটির অঙ্গসংগঠন জাতীয় মহিলা পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ম সম্পাদক শিউলী আক্তার। এর আগে একাধিকবার দলীয় মনোনয়ন চেয়ে পাননি তিনি।

এবার সিলেট-৬ আসন (গোলাপগঞ্জ-বিয়ানীবাজার) থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চেয়েছেন ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র আলেয়া সারোয়ার ডেইজি এবং বিএনপির মনোনয়ন চেয়েছেন দলটির কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য অ্যাডভোকেট হাদিয়া চৌধুরী মুন্নী।

বিভাগের সুনামগঞ্জ জেলায় সংসদীয় আসন রয়েছে পাঁচটি। এর মধ্যে তিনটি আসনে দলীয় মনোনয়ন চান তিন নারী নেত্রী। সুনামগঞ্জ-১ আসনে (ধর্মপাশা-জামালগঞ্জ-তাহিরপুর) আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চেয়েছেন কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শামীমা শাহরিয়ার। গেল নির্বাচনেও তিনি মনোনয়ন চেয়েছিলেন, তবে পাননি। সুনামগঞ্জ-২ আসনের (দিরাই-শাল্লা) বর্তমান সাংসদ জয়া সেনগুপ্ত। স্বামী সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের মৃত্যুর পর আসনটি শূন্য হলে উপনির্বাচনে সাংসদ হন জয়া। এবারও তিনি দলের মনোনয়ন চেয়েছেন।

সুনামগঞ্জ-৪ আসনে (সদর ও বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা) এবার আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন চেয়েছেন জেলা মহিলা লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট শামসুন্নাহার বেগম (শাহানা রব্বানী)। তিনি বর্তমানে সুনামগঞ্জ-মৌলভীবাজার সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য। এবার সরাসরি নির্বাচন করতে চান তিনি।

সিলেট বিভাগের মৌলভীবাজার জেলায় চারটি সংসদীয় আসন রয়েছে। তন্মধ্যে তিনটি আসন থেকে দলীয় মনোনয়ন চেয়েছেন তিন নারী নেত্রী। মৌলভীবাজার-২ আসনে (কুলাউড়া-কমলগঞ্জ উপজেলা একাংশ) জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ থেকে নির্বাচন করতে চান নেহার বেগম। তিনি কুলাউড়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান, মৌলভীবাজার জেলা জাসদের সদস্য।

মৌলভীবাজার-৩ আসনের (সদর ও রাজনগর উপজেলা) বর্তমান সাংসদ সৈয়দা সায়রা মহসিন। প্রয়াত সমাজকল্যাণ মন্ত্রী সৈয়দ মহসিন আলীর স্ত্রী সায়রা স্বামীর মৃত্যুর পর উপনির্বাচনে সাংসদ হন। এবারও তিনি আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন চেয়েছেন। একই আসন থেকে বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশী সংরক্ষিত আসনের সাবেক এমপি ও জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক খালেদা রব্বানী।

বিভাগের হবিগঞ্জ জেলায় চারটি সংসদীয় আসনের মধ্যে দুটিতে সরাসরি নির্বাচন করতে চান দুই নারী নেত্রী। হবিগঞ্জ-১ আসনে (নবীগঞ্জ-বাহুবল উপজেলা) এবার সরাসরি আওয়ামী লীগের মনোনয়নে লড়তে চান আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী। তিনি সিলেট-হবিগঞ্জ সংরক্ষিত আসনের বর্তমান সাংসদ। হবিগঞ্জ-৪ আসনে (চুনারুঘাট-মাধবপুর উপজেলা) বিএনপি থেকে মনোনয়ন চেয়েছেন শাম্মী আক্তার। তিনি সংরক্ষিত আসনের সাবেক সাংসদ, বর্তমানে বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-স্থানীয় বিষয়ক সম্পাদক।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com