শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:২৯ পূর্বাহ্ন

কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী সুবীর নন্দীর শেষকৃত্য সম্পন্ন

তরফ নিউজ ডেস্ক : রাজধানীর সবুজবাগের বরদেশ্বরী কালীমাতা মন্দির ও শ্মশানে কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী সুবীর নন্দীর শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়েছে।

বুধবার (৮ মে) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে সবুজবাগ শ্মশানে তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়। এরআগে বিকেল ৫টায় তাঁর শেষকৃত্য অনুষ্ঠান (দাহ) শুরু হয়।

সঙ্গীতে একুশে পদকপ্রাপ্ত সুবীর নন্দী মঙ্গলবার ভোররাত সাড়ে চারটায় সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৬ বছর। গত ৩০ এপ্রিল থেকে তিনি সেখানেই চিকিৎসাধীন ছিলেন।

বুধবার সকাল ৬টা ৫০ মিনিটে রিজেন্ট এয়ারওয়েজের একটি উড়োজাহাজে করে দেশের এই জনপ্রিয় কন্ঠশিল্পীর মরদেহ ঢাকার হযরত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছায়। বিমানবন্দর থেকে তাঁর মরদেহ রাজধানীর গ্রিন রোডের গ্রিন ভিউ অ্যাপার্টমেন্টের বাসায় নেয়া হয়।

এরপর ঢাকেশ্বরী মন্দির হয়ে শহীদ মিনারে জনগণের শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তাঁর মরদেহ বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশন, চ্যানেল আই ও পরে রামকৃষ্ণ মিশনে নিয়ে যাওয়া হয়।

সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের পরিচালনায় বেলা ১১ টার দিকে সুবীর নন্দীর মরদেহ সর্বস্তরের জনগণের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে রাখা হয়।

শহীদ মিনারে রাজনীতিক, সংগীত শিল্পী, গীতিকার, সংগীত জগতের ব্যক্তিবর্গ, লেখকসহ সমাজের বিভিন্ন শ্রেণিপেশার এবং অগণিত সাধারণ মানুষ এবং বিভিন্ন দল, সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন ও প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে দেড় ঘন্টাব্যাপী দেশের কৃর্তিমান এই শিল্পীর কফিনে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করে শেষ বিদায় জানান। শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জ্ঞাপনের সময় শিল্পীর স্ত্রী, মেয়েসহ পরিবারের সদস্যরা ও আত্মীয়স্বজন উপস্থিত ছিলেন।

কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শিল্পীর কফিনে পুস্পার্ঘ অর্পণ করে প্রথমেই শ্রদ্ধা জানান আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে দলের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ, সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক নেতা অসীম কুমার উকিল, উপ-দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়–য়াসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। পরে শ্রদ্ধা জানান তথ্যমন্ত্রী ড.হাছান মাহমুদসহ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা, সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদসহ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা।

এ ছাড়াও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামানসহ শিক্ষকবৃন্দ, রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী সংসদ, সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের পক্ষে কে এম শফিউল্লাহ,বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট, মহিলা আওয়ামী লীগ, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, গণস্বাক্ষরতা অভিযান, গণসংগীত সমন্বয় পরিষদ, বেণুকা ললিতকলা একাডেমি, জয়বাংলা সাংস্কৃতিক ঐক্যজোট, পুলিশ সার্ভিস এসোসিয়েশন, জনতা ব্যাংক, আইন ও শালিশ কেন্দ্র, গণ আজাদী লীগ, মহিলা পরিষদ, বাংলা একাডেমি, শিশু একাডেমি, ন্যাপ (মোজাফফর), বাংলাদেশ বেতারের কর্মকর্তারা, কুমুদিনী ওয়েলফার ট্রাষ্ট, ঢাকাস্থ মৌলভীবাজার সমিতি, জাতীয় কবিতা পরিষদ, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদ, ওয়াকার্স পার্টি, বিএনপির পক্ষে গীতিকার গাজী মাযহারুল আনোয়ার, বিটিভি, দেশ টিভি পরিবার, উদীচী শিল্পী গোষ্ঠী নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখা, জাতীয় পার্টি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের পক্ষে হাসানুল হক ইনু, ছায়ানট, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ সংগীত পরিষদ, খেলাঘর কেন্দ্রীয় আসরসহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানান হয়।

এ ছাড়াও শিল্পী-কলাকুশলীদের মধ্যেকার শ্রদ্ধা জানান শিল্পী রফিকুল আলম, ড. এনামুল হক, শিল্পী খুরশীদ আলম, শিল্পী রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা, খায়রুল আনাম শাকিল, কুমার বিশ্বজিৎ, শিল্পী এন্ড্রু কিশোর, শিল্পী কল্যানী ঘোষ,অরুপ রতন চৌধুরী প্রমুখ।

নন্দিত কণ্ঠশিল্পী সুবীর নন্দী ৪০ বছরের দীর্ঘ ক্যারিয়ারে গেয়েছেন আড়াই হাজারেরও বেশি গান। বেতার থেকে টেলিভিশন, তারপর চলচ্চিত্রেও উপহার দিয়েছেন অসংখ্য জনপ্রিয় গান। ১৯৮১ সালে তার প্রথম একক অ্যালবাম ‘সুবীর নন্দীর গান’ ডিসকো রেকর্ডিংয়ের ব্যানারে বাজারে আসে। তবে চলচ্চিত্রে তিনি প্রথম গান করেন ১৯৭৬ সালে আব্দুস সামাদ পরিচালিত ‘সূর্যগ্রহণ’ চলচ্চিত্রে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com