সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ০১:২৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :

বানিয়াচংয়ে জনাব আলী এমপি’র মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

রায়হান উদ্দিন সুমন, বানিয়াচং (হবিগঞ্জ) : বানিয়াচং আজমিরীগঞ্জ (হবিগঞ্জ-২) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য, বানিয়াচংয়ের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জনাব আলী সরকারি কলেজ ও জনাব আলী ঈদগাহের প্রতিষ্ঠাতা মরহুম জনাব আলীর ৩৪তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে।

বুধবার (১৫মে) মাগরিব নামাজের পর এ উপলক্ষে জনাব আলী সরকারি কলেজ কর্তৃক আয়োজিত স্থানীয় কলেজ মসজিদে মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া, কর্মময় জীবনী নিয়ে আলোচনা, মিলাদ মাহফিল ও কবর জিয়ারত অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মিলাদ মাহফিলে জনাব আলী ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক ছাড়া ও এলাকার শতশত মুসল্লি অংশগ্রহণ করেন। মিলাদ মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন-অধ্যক্ষ সাফিউজ্জামান খান, মরহুমের একমাত্র ছেলে এড.তকদীর মোহাম্মদ বেনজীর জনাব, প্রভাষক জয়নাল আবেদীন, আ. শহীদ, জাকারিয়া খান, আ. সাত্তার, মাহমুদ মিয়া, সাজিদুর রহমান, মোফাজ্জল হোসাইন, মাওলানা আলাউদ্দিন, হাফেজ আব্দুল বাতেন, অফিস সহকারী মিছবা উদ্দিন, হেলাল আহমেদ, মহিবুর রহমান, সাইফুল ইসলাম, আবজল মিয়া প্রমুখ।

মিলাদ মাহফিলে দোয়া পরিচালনা করেন জনাব আলী কলেজ মসজিদের ইমাম মাওলানা আলাউদ্দিন। পরে বানিয়াচং বড়বাড়িস্থ মরহুমের কবরস্থানে গিয়ে কবর জিয়ারত করেন মিলাদ মাহফিলে আসা মুসল্লিরা।

উল্লেখ্য, সাবেক এমপি মরহুম জনাব আলী মোক্তার বানিয়াচং উপজেলা সদরের যাত্রাপাশা মহল্লার কৃষক পরিবারে ১৯৩৭ সালের ১ মে জন্ম গ্রহণ করেন। মোক্তার নামেই পরিচিতি ছিলেন তিনি। পিতার নাম ছিল আব্দুর রহমান ও মাতার নাম ইংরাজ বিবি। বর্তমান সমাজে একজন আদর্শ মানুষের দৃষ্টান্ত হতে পারেন দানবীর মরহুম জনাব আলী। তার কষ্টের অর্জিত টাকায় প্রতিষ্ঠা করেন জনাব আলী ডিগ্রি কলেজ। ক্ষণজন্মা এই ব্যক্তিটি শেষ জীবনে দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়েও চিকিৎসা না করিয়ে এই কলেজের উন্নয়নে শহরের নিজস্ব ভবন ও দোকান বিক্রি করেছিলেন। বড় মাপের নেতা ও এমপি নির্বাচিত হয়েও ছাত্রদের লেখাপড়ার কথা বিবেচনা করে সব কিছু বিসর্জন দিয়েছেন।

মরহুম জনাব আলী ১৯৫৩ সালে বানিয়াচং এল আর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাস, ১৯৫৫ সালে বৃন্দাবন কলেজ থেকে এইচএসসি ও ১৯৫৭ সালে বিএ পাস করেন। পরে উচ্চ শিক্ষার জন্য ঢাকা সেন্ট্রাল ‘ল’ কলেজে ভর্তি হন। এলএলবি পাস করে তিনি আইন পেশায় যোগ দেন। তিনি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নূরুল আমিনের আইন সহকারি হিসেবে বেশ কিছু দিন কাজ করেন। ১৯৭৯ সালে হবিগঞ্জ-২ বানিয়াচং-আজমিরিগঞ্জ নির্বাচনী এলাকার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এই মহান ব্যক্তি শেষ পর্যায়ে দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে ১৯৮৫ সালের ১৫ মে হবিগঞ্জ শহরের সিনেমা হল রোডে নিজ বাস ভবনে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৪৮ বছর।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com