সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ১২:০৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :

পা হারানো রাসেলকে ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার আদেশ বহাল

তরফ নিউজ ডেস্ক : রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে ফ্লাইওভারে গ্রিনলাইন পরিবহনের বাসচাপায় পা হারানো প্রাইভেটকার চালক রাসেল সরকারকে ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়া হাইকোর্টের আদেশ বিরুদ্ধে করা আপিল আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন আপিল বিভাগ। এর ফলে আগের হাইকোর্টের দেয়া আগের আদেশই বহাল থাকছে। আজ প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ এ আদেশ দেন।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খন্দকার শামসুল হক রেজা। তার সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী উম্মে কুলসুম স্মৃতি। আর  গ্রিনলাইন পরিবহনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী ওজি উল্লাহ।

এর আগে ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার আদেশের পাশাপাশি রাসেলের অন্য পায়ে অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন হলে এবং কাটাপড়া বাম পায়ে সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে কৃত্রিম পা লাগানোর খরচও গ্রিনলাইন পরিবহন কর্তৃপক্ষকে দিতে আদেশ দেন হাইকোর্ট। গত ১২ই মার্চ বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ২৮শে এপ্রিল মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভারের ওপরে কথা কাটাকাটির  জেরে গ্রিনলাইন পরিবহনের বাসচালক ক্ষিপ্ত হয়ে প্রাইভেটকার চালকের ওপর দিয়েই বাস চালিয়ে  দেন। এতে ঘটনাস্থলেই প্রাইভেটকার চালক রাসেল সরকারের (২৩) বাম পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। শঙ্কায় পড়ে তার জীবন।

পা হারানো রাসেল সরকারের বাড়ি গাইবান্ধার পলাশবাড়িতে।

তার বাবার নাম শফিকুল ইসলাম।  রাসেল রাজধানীর আদাবর এলাকার সুনিবিড় হাউজিংয়ে বসবাস করতেন এবং স্থানীয় একটি ‘রেন্ট-এ-কার’ প্রতিষ্ঠানের প্রাইভেটকার চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ১৪ই মে রাসেলকে কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ কেন দেয়া হবে না, তা জানতে  চেয়ে রুল জারি করেছিলেন হাইকোর্ট। রাসেলের পক্ষ থেকে আদালতকে জানানো হয়, এখন পর্যন্ত বাস কর্তৃপক্ষ তার কোনও খোঁজ খবর নেয়নি। পরে রাসেলের ক্ষতিপূরণ চেয়ে রিট দায়ের করেন সংরক্ষিত আসনের তৎকালীন সংসদ সদস্য উম্মে কুলসুম স্মৃতি।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com