বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ১০:৫৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বাহুবলে ৫ আওয়ামীলীগ নেতাকে হারিয়ে আলেম চেয়ারম্যান নির্বাচিত শান্তিপূর্ণ ও বিশ্বাস যোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠিত করতে পুলিশ বদ্ধপরিকর- এসপি আক্তার হোসেন জনগণ যাকে ভালবাসবে, দায়িত্ব দিতে চাইবে, তাকেই দেবে- জেলা প্রশাসক বাহুবলে বিয়ের আনন্দ-ফুর্তি চলাকালে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবতীর মুত্যু বাহুবল উপজেলা নির্বাচন : ২০ প্রার্থীর মাঝে নির্বাচনী প্রতীক বরাদ্দ বাহুবল উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত বাহুবলে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২ বাহুবল হাসপাতালের নতুন ব্যবস্থাপনা কমিটি প্রথম সভা বাহুবলে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের বাছাইয়ে দুই প্রার্থীর মনোনয়নপত্র অবৈধ বাহুবল উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ২০ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল

আড়াই ঘণ্টায় ঢাকা থেকে ফেনী!

ফেনী সংবাদদাতা : ঢাকা থেকে ফেনীর দূরত্ব যেনো আরো কমিয়ে দিয়েছে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে নবনির্মিত চার লেনের মেঘনা ও গোমতী দ্বিতীয় সেতু। চার লেন চালু হওয়ার পর গত কয়েক বছরে সময় কমেছিল এই রুটের। ১৬৮ কিলোমিটারের এই রুটের যাত্রীদের গলার কাঁটা ছিল মেঘনা ও গোমতীর পুরনো দুই সেতু। সে কাঁটাও এবার সরলো।

মেঘনা ও গোমতীর দ্বিতীয় সেতু চালুর পর মাত্র আড়াই থেকে তিন ঘণ্টাতেই ঢাকা থেকে ফেনী যাতায়াত করতে পারছেন যাত্রীরা। আগে একই দূরত্বে ৪ থেকে ৬ ঘণ্টা লাগতো যানজটের কারণে। সেখানে অর্ধেক সময় বেঁচে যাওয়ায় যাত্রীদের মধ্যে বিরাজ করছে স্বস্তি। খুশি পরিবহন মালিক, চালকসহ সংশ্লিষ্ট সবাই।

রোববার (২৬ মে) এ সড়কের বিভিন্ন পরিবহন মালিক, চালক ও যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা যায়।

শনিবার (২৫ মে) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বহুল প্রতীক্ষিত সেতু দু’টি উদ্বোধন করেন।

স্টার লাইন পরিবহনের পরিচালক মাইন উদ্দিন বলেন, সেতুগুলো চালু হওয়ায় যাত্রী, চালক, পরিবহন মালিক- সবাই খুশি। খুশি এজন্য যে, যেখানে যানজটের কারণে ১০/১২ ঘণ্টা সময়ও লাগতো সেখানে এখন মাত্র আড়াই থেকে তিন ঘণ্টায় যাতায়াত করা সম্ভব হচ্ছে। নির্ধারিত সময়ের আগে সেতুগুলো চালু করে ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করে দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ পরিবহন সেক্টরের সঙ্গে জড়িত সবাই।

এনা ট্রান্সপোর্টের জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) সৈয়দ আতিক বলেন, আগে থেকে এখন ভালো অভিজ্ঞতা। যাত্রীরা খুশি, পরিবহনের লোকজনও খুশি। দীর্ঘদিন অনেক কষ্টে ছিল পরিবহন সেক্টরের লোকজন। যেখানে মেঘনা আর গোমতী সেতু পার হতে ৪/৫ ঘণ্টা লাগতো এখন সেখানে সময় লাগছে মাত্র ২০/২৫ মিনিট।

‘ঢাকা থেকে এখন মাত্র আড়াই ঘণ্টার মধ্যেই ফেনী যাওয়া যাবে। গাড়ির গতি যদি ঘণ্টায় ৭০ কিলোমিটারও হয় যাত্রাবিরতিসহ মাত্র আড়াই ঘণ্টাতেই ঢাকা থেকে ফেনী আসা-যাওয়া করা সম্ভব হচ্ছে।’

সড়কে অভিজ্ঞতার ব্যাপারে কথা হয় স্টার লাইন পরিবহনের চালক জসিম উদ্দিনের সঙ্গে। তিনি বলেন, ঝুঁকিপূর্ণ তিন সেতু কাঁচপুর, মেঘনা আর গোমতীর কারণে এতদিন সীমাহীন কষ্ট করতে হয়েছে চালকদের। এ সেতুগুলো পার হতেই সময় লেগে যেতো ৪/৫ ঘণ্টা। ফলে ফেনী থেকে ঢাকা ১৬৮ কিলোমিটার রাস্তা পাড়ি দিতে কখনো কখনো ১০/১২ ঘণ্টা সময় লেগে যেতো।

‘এ অবস্থা চলে আসছিলো দীর্ঘদিন থেকে। নতুন সেতু দু’টি উদ্বোধনের ফলে খুব কম সময়েই আসা-যাওয়া করা যাচ্ছে। আগে যেখানে ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপচয় করতে হতো, এখন সেখানে ১৫/২০ মিনিটেই সেতু পার হওয়া যাচ্ছে।’

আরো কয়েকজন চালকের সঙ্গে কথা হলে তারা জানান, চারলেনের ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক দিয়ে যানবাহন এসে আগে পুরাতন মেঘনা-গোমতী সেতুতে একলেনে উঠতো। পুরাতন সেতুটিতে যানবাহনের ধীরগতির কারণে যানজটে আটকা পড়ে ভোগান্তিতে পড়তেন যাত্রী ও চালকেরা। বর্তমানে তা থেকে রেহাই পাওয়া গেছে।

সফিকুল ইসলাম নামে এক যাত্রী বলেন, আগে ফেনী থেকে ঢাকায় যেতে ৪ থেকে ৬ ঘণ্টা লেগে যেতো। যানজট থাকলে তা ঠেকতো ১০/১২ ঘণ্টায়। এখন সেখানে সময় লাগছে মাত্র ৩ ঘণ্টা। এটা সত্যিই আনন্দের বিষয়। এর ফলে ফেনীর মানুষ দিনে দিনে রাজধানীতে গিয়ে নিজেদের কাজ সেরে আবার ফিরে আসতে পারবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com