বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ০১:৫৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বৃহস্পতিবার সারা দেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ ঘোষণা চট্টগ্রামে ছাত্রলীগের সঙ্গে আন্দোলনকারীদের সংঘর্ষে নিহত ৩ কলম্বিয়াকে হারিয়ে দ্বিতীয়বার কোপা আমেরিকার চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা বাহুবলে স্মার্ট এনআইডি কার্ড বিতরণের জন্য জনবল নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি বাহুবলে দুই মাস ধরে নিখোঁজ রবিউলের সন্ধান চায় পরিবার যে কারণে ব্যারিস্টার সুমনকে হত্যার হুমকি দেয় সোহাগ ব্যারিস্টার সুমনকে হত্যার হুমকিদাতা গ্রেপ্তার পিএসসির প্রশ্নফাঁস: দায় স্বীকার করে ৭ জনের জবানবন্দি, ১০ জন কারাগারে দেশের সম্পদ বেচে মুজিবের মেয়ে ক্ষমতায় আসে না: প্রধানমন্ত্রী ব্যারিস্টার সুমনকে হত্যার হুমকি, প্রতিবাদে বাহুবলে মানববন্ধন

যাদের হাতে ভারতের অর্থ-স্বরাষ্ট্র-পররাষ্ট্র-প্রতিরক্ষা

তরফ আন্তর্জাতিক ডেস্ক : টানা দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। বৃহস্পতিবার (৩০ মে) তার সঙ্গে শপথ নিয়েছেন আরো ৫৭ মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী।

মোদীর নতুন মন্ত্রিসভায় সবচেয়ে বড় চমক হিসেবে এসেছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। নির্বাচনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখা এ নেতা যে বড় কোনো মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পাবেন, তা আগেই অনুমান করা গেছিল। কার্যত হলোও সেটাই, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেয়েছেন তিনি।

গতবারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং এবার পেয়েছেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব।

গত মন্ত্রিসভায় অর্থ মন্ত্রলায়ের দায়িত্ব পালন করেছেন অরুণ জেটলি। এবার শারীরিক অসুস্থতার কারণে তিনি নির্বাচনে লড়েননি, অনীহা জানান মন্ত্রিত্ব নিতেও। আলোচনা ছিল, কে পাচ্ছেন দেশের অর্থকোষের দায়িত্ব। নানা জল্পনা-কল্পনা শেষে এ মন্ত্রণালয়সহ করপোরেট বিষয় মন্ত্রণালয়ের গুরুভার গেছে নির্মলা সীতারমণের কাঁধে।

এতদিন পররাষ্ট্র সচিবের দায়িত্ব পালন করা ড. এস জয়শঙ্কর এবার হয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

সড়ক পরিবহণ ও মহাসড়ক মন্ত্রী হয়েছেন নীতিন গড়করি। এর সঙ্গে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বও দেওয়া হয়েছে তাকে।

পারমাণবিক শক্তি ও মহাকাশ মন্ত্রণালয় নিজের হাতে রেখেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

নির্বাচনে চমক দেখানো ‘জায়ান্ট কিলার’ খ্যাত স্মৃতি ইরানি পেয়েছেন নারী ও শিশু উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব।

ভোক্তা অধিকার, খাদ্য ও বিতরণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব গেছে রামবিলাস পাসওয়ানের কাছে।

প্রকাশ জাভরেকর হয়েছেন নতুন তথ্য ও প্রচার মন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার ভারতের রাষ্ট্রপতি ভবনে এক জাঁকজমক অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোভিন্দের উপস্থিতিতে মন্ত্রিসভার শপথ অনুষ্ঠিত হয়।

মন্ত্রিসভায় যারা স্থান পেয়েছেন তাদের মধ্যে ৫৪ জনই বিজেপি সদস্য। শিরোমণি আকালি দল, লোক জনশক্তি পার্টি ও শিবসেনার একজন করে জায়গা পেয়েছেন মন্ত্রিসভায়। এছাড়া একজন রয়েছেন রিপাবলিকান পার্টি অব ইন্ডিয়া আঠাওয়াল থেকেও।

নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রিপরিষদের ২৪ মন্ত্রী হলেন- অমিত শাহ, রাজনাথ সিং, নীতিন গড়করি, সদানন্দ গৌড়া, নির্মলা সীতারমণ, রামবিলাস পাসওয়ান, নরেন্দ্র সিং তোমার, রবিশঙ্কর প্রসাদ, হরসিমরত কাউর বাদল, ড. এস জয়শঙ্কর, রমেশ নিশাঙ্ক পোখরিয়াল, থাওয়ার চন্দ গেহলত, অর্জুন মুন্ডা, স্মৃতি ইরানি, ড. হর্ষ বর্ধন, প্রকাশ জাভরেকর, পীযুষ গোয়েল, ধর্মেন্দ্র প্রধান, মুখতর আব্বাস নকভি, প্রহ্লাদ জোশি, ড. মহেন্দ্র নাথ পান্ডে, অরবিন্দ সাওয়ান্ত, গিরিরাজ সিং ও গজেন্দ্র সিং সেখাওয়াত।

প্রতিমন্ত্রী হিসেবে মোদীর সহযোগীরা হলেন- সন্তোষ গঙ্গওয়ার, রাও ইন্দ্রজিত সিং, শ্রীপদ নায়ক, জিতেন্দ্র সিং, কিরণ রিজু, প্রহ্লাদ সিং প্যাটেল, আর কে সিং, হরদীপ সিং পুরি, মনসুখ মান্ডভিয়া, ফগ্গন সিং কুলসতে, অশ্বিনী চৌবে, জেনারেল ভি কে সিং, কিষণ পাল গুজ্জর, দানভে রাওসাহেব দাদারো, জি কিষণ রেড্ডি, পারষোত্তম রূপালা, রামদাস আঠাওয়ালে, সাধ্বী নিরঞ্জন জ্যোতি, বাবুল সুপ্রিয়, সঞ্জীব কুমার বলিয়ান, ধোত্রে সঞ্জয় শামরাও, অনুরাগ সিং ঠাকুর, অঙ্গদি সুরেশ চান্নাবসাপ্পা, নিত্যানন্দ রাই, ভি মুরলীধরণ, রেনুকা সিং সরুতা, সোম প্রকাশ, রামেশ্বর তেলি, প্রতাপ চন্দ্র সারঙ্গি, কৈলাস চৌধুরী, দেবশ্রী চৌধুরী, অর্জুন রাম মেঘওয়াল ও রত্তন লাল কাটারিয়া।

রাজ্যবর্ধন রাঠোর, উমা ভারতী, জয়ন্ত সিনহাসহ মোট ৩৭ জন গত মন্ত্রিসভা থেকে বাদ পড়েছেন।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com