শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ১২:১৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বাহুবলে ভূমি সেবা সপ্তাহের উদ্বোধন বাহুবলে জাতীয় পুষ্টি সেবা কার্যক্রমের আওতায় কর্মশালা অনুষ্ঠিত ফয়জাবাদ হাই স্কুলের সভাপতি সামিউল ইসলাম ঘূর্ণিঝড় রেমাল: ১৯ উপজেলার নির্বাচন স্থগিত বাহুবল উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অবাদ, সুন্দর ও দাঙ্গামুক্তভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে বাসার ছাদে আম পাড়তে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শিশুর মৃত্যু রেমাল পরিণত প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে, মহাবিপদ সংকেত বাহুবলে ৫ আওয়ামীলীগ নেতাকে হারিয়ে আলেম চেয়ারম্যান নির্বাচিত শান্তিপূর্ণ ও বিশ্বাস যোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠিত করতে পুলিশ বদ্ধপরিকর- এসপি আক্তার হোসেন জনগণ যাকে ভালবাসবে, দায়িত্ব দিতে চাইবে, তাকেই দেবে- জেলা প্রশাসক

সাবেক ফুটবলার মোক্তার মুক্তার হোসেন আর নেই! জানাযায় মুসল্লির ঢল

শায়েস্তাগঞ্জ (হবিগঞ্জ) সংবাদদাতা : শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার নূরপুর গ্রামের জাতীয় দলের সাবেক ফুটবলার,হবিগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি, শায়েস্তাগঞ্জ থানা পুলিশিংয়ের সভাপতি, নূরপুর গ্রামের বিশিষ্ট মুরুব্বী, চার গ্রামের প্রেসিডেন্ট হাজ্বী মুক্তার হোসেন ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)!

বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার নুরপুর গ্রামে নিজ বাড়ীতে মারা যান তিনি। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। মৃত্যুকালে স্ত্রী, ৪ ছেলে ও  ১ মেয়ে রেখে গেছেন। ছোট ছেলে নাজমুল হোসেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়ার।

হাজী মোক্তার হোসেন শুধু খেলোয়ারই ছিলেন না। তিনি ছিলেন সংগঠন, রাজনৈতিক নেতা ও এলাকার বিশিষ্ট মুরুব্বি ছিলেন। তিনি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত সৈনিক জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক খেলোয়ার ছিলেন।

বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারী) বিকাল ৫টার দিকে নূরপুর হাইস্কুল মাঠে জানাযার নামাজে হাজারো নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষের ঢল নামে। জানাযা পূর্ব সমাবেশে অনেকেই বক্তব্য রাখেন এবং বক্তব্যে সবাই মরহুম মুক্তার হোসেনের স্মৃতিচারণ করেন এবং মরহুমের জন্য দোয়া চাঁন। জানাযায় ইমামতি করেন, মরহুমের ভাতিজা হাফেজ বেলায়াত হোসেন আক্তারী।

জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। পরে সিলেট সেনানিবাসের একটি চৌকুস টিম মোক্তার হোসেনকে শেষ বিদায় জানাতে স্বশস্ত্র সালাম প্রদান করে। এসময় বিউগলে করুন সুর বেজে ওঠে।

এর আগে বাংলাদেশ বিমানবাহিনী শমসেরনগর ঘাটির একটি টিম তাঁকে সামাল প্রদর্শন করেন।

তাঁর মৃত্যুতে পুরো শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় বিরাজ করছে শোকাবহ পরিবেশ।তার ইন্তেকালে সবার মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।মরহুমের পরকালিন নাজাত ও মাগফিরাত কামনা করে সবার কাছে দোয়া চান মরহুমের পরিবারবর্গ ।

উল্লেখ, মরহুম মোক্তার হোসেন ১৯৭২ সালে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে যোগদান করেন। পরে সেনাবাহিনীর ফুটবল টিমে ভালো খেলোয়ার হিসেবে পেয়ে যান অধিনায়কের দায়িত্ব। ১৯৮৭ সালে চাকুরী থেকে অবসর গ্রহণের আগ পর্যন্ত সেনাবাহিনী ফুটবল টিমের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেছেন। ১৯৮৩ সালে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল টিমের খেলোয়ার হিসেবে স্থান করে নেন মোক্তার হোসেন। সুনামের সাথে খেলেছেন দেশের বিভিন্নস্থানে।অর্জন করেছেন নামজস খ্যাতি।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com