বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ১২:০২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বাহুবলে ৫ আওয়ামীলীগ নেতাকে হারিয়ে আলেম চেয়ারম্যান নির্বাচিত শান্তিপূর্ণ ও বিশ্বাস যোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠিত করতে পুলিশ বদ্ধপরিকর- এসপি আক্তার হোসেন জনগণ যাকে ভালবাসবে, দায়িত্ব দিতে চাইবে, তাকেই দেবে- জেলা প্রশাসক বাহুবলে বিয়ের আনন্দ-ফুর্তি চলাকালে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবতীর মুত্যু বাহুবল উপজেলা নির্বাচন : ২০ প্রার্থীর মাঝে নির্বাচনী প্রতীক বরাদ্দ বাহুবল উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত বাহুবলে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২ বাহুবল হাসপাতালের নতুন ব্যবস্থাপনা কমিটি প্রথম সভা বাহুবলে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের বাছাইয়ে দুই প্রার্থীর মনোনয়নপত্র অবৈধ বাহুবল উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ২০ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল

রাজশাহীকে উড়িয়ে দিল সিলেট সিক্সার্স

তরফ নিউজ ডেস্ক : জেসন রয়ের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে লড়াইয়ের পুঁজি পাওয়া সিলেট সিক্সার্স জিতল অনায়াসে। রাজশাহী কিংসের হয়ে লড়াই করতে পারলেন কেবল ফজলে মাহমুদ। সোহেল তানভির, মোহাম্মদ নওয়াজদের দারুণ বোলিংয়ে জয়ে ফিরল ওয়াকার ইউনুসের শিষ্যরা।

বিপিএলে চট্টগ্রাম পর্বের প্রথম ম্যাচে ৭৬ রানে জিতেছে সিলেট। ১৮১ রানের লক্ষ্য তাড়ায় ১০ বল বাকি থাকতে ১০৪ রানে গুটিয়ে যায় রাজশাহী।

জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে শুক্রবার টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় সিলেট। রাজশাহীর এলবিডব্লিউর সফল রিভিউয়ে ফিরে যান সাব্বির রহমান।

ব্যাটিং সহায়ক উইকেটে শুরু থেকে বোলারদের ওপর চড়াও হন লিটন দাস। তিন চার ও এক ছক্কায় ১৩ বলে ২৪ রান করা কিপার ব্যাটসম্যানকে স্লোয়ারে থামান মুস্তাফিজুর রহমান।

এবারের আসরে প্রথমবারের মতো খেলতে নামা জেসন রয়ের ব্যাট শুরু থেকেই ছিল উত্তাল। আফিফ হোসেনের সঙ্গে ৬২ রানের জুটিতে দলকে তিনি গড়ে দেন বড় সংগ্রহের ভিত।

বিপজ্জনক রয়কে বোল্ড করে থামান লঙ্কান লেগ স্পিনার সিকুগে প্রসন্ন। ২৮ বলে খেলা ইংলিশ ডানহাতি ব্যাটসম্যানের ৪২ রানের ইনিংস গড়া চারটি চার ও দুটি ছক্কায়।

আফিফ ও নিকোলাস পুরান পারেননি সময়ের দাবি মেটাতে। অনেকটা সময় ক্রিজে সময় কাটানো আফিফ ২৯ বলে ফিরেন ২৮ রান করে। দুই ছক্কায় পুরানের অবদান ১৮ বলে ১৯।

অবিচ্ছিন্ন সপ্তম উইকেট জুটিতে অধিনায়ক অলক কাপালীর সঙ্গে ৪১ যোগ করে দলকে ১৮০ পর্যন্ত নিয়ে যান সোহেল তানভির। ১০ বলে চারটি চারে অপরাজিত ২৩ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি।

রান তাড়ায় শুরুটা ভালো হয়নি রাজশাহীর। আগের দুই ম্যাচে সেঞ্চুরি ও ফিফটি করা লরি ইভান্সকে প্রথম ওভারে হারায় তারা। আরেক ওপেনার মুমিনুল হককে দ্রুত বিদায় করেন তাসকিন আহমেদ।

মুখোমুখি হওয়া প্রথম বলে আম্পায়ার্স কলে এলবিডব্লিউর হাত থেকে বেঁচে যাওয়া ফজলে মাহমুদ এক প্রান্ত আগলে রেখে টানেন দলকে। পাঁচ বলের মধ্যে বাঁহাতি এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানের সঙ্গে ক্রিস্টিয়ান ইয়ঙ্কার ও মেহেদী হাসান মিরাজকে ফিরিয়ে রাজশাহীকে কাঁপিয়ে দেন মোহাম্মদ নওয়াজ।

মাহমুদ ৪১ বলে ছয় চার ও এক ছক্কায় ফিরেন ৫০ রান করে। দলের আর কেউ যেতে পারেননি ২০ পর্যন্ত। ২৩ রানে শেষ ৭ উইকেট হারানো দলটি কোনোমতে যায় তিন অঙ্কে।

পাকিস্তানের বাঁহাতি স্পিনার নওয়াজ ২২ রানে নেন ৩ উইকেট। তার স্বদেশের বাঁহাতি পেসার তানভির ৩ উইকেট নেন ১৭ রানে।

শেষের ঝড়ো ব্যাটিং আর আঁটসাঁট বোলিংয়ে নেওয়া ৩ উইকেটে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জিতেছেন তানভির।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

সিলেট সিক্সার্স: ২০ ওভারে ১৮০/৬ (লিটন ২৪, সাব্বির ১, রয় ৪২, আফিফ ২৮, পুরান ১৯, কাপালী ১৬*, নওয়াজ ১১, তানভির ২৩*; রাব্বি ৪-০-৩৩-১, সানি ৩-০-৩৪-১, মুস্তাফিজ ৪-০-৪৩-২, মিরাজ ৪-০-২৮-০, প্রসন্ন ২-০-১৭-১, ডেসকাট ৩-০-১৭-১)

রাজশাহী কিংস: ১৮.২ ওভারে ১০৪ (ইভান্স ১, মুমিনুল ৫, মাহমুদ ৫০, ডেসকাট ১২, জাকির ১৬, ইয়ঙ্কার ১, প্রসন্ন ২, মিরাজ ১, সানি ৮, রাব্বি ২, মুস্তাফিজ ১*; তানভির ৪-০-১৭-৩, ইবাদত ৩-০-১৮-০, তাসকিন ৩-০-২০-২, নওয়াজ ৪-০-২২-৩, কাপালী ২.২-০-১৫-২, আফিফ ২-০-৯-০)

ফল: সিলেট সিক্সার্স ৭৬ রানে জয়ী

ম্যান অব দা ম্যাচ: সোহেল তানভির

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

ওয়েবসাইটের কোন কনটেন্ট অনুমতি ব্যতিত কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Design & Developed BY ThemesBazar.Com